kalerkantho

শুক্রবার । ১৫ নভেম্বর ২০১৯। ৩০ কার্তিক ১৪২৬। ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

ময়মনসিংহে শিশু অভি হত্যায় ৫ শিশুর জামিন

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৩ অক্টোবর, ২০১৯ ২১:৫২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ময়মনসিংহে শিশু অভি হত্যায় ৫ শিশুর জামিন

ওরা ৫ শিশু। একজনের বয়স ১৪ বছর। আর বাকী চারজনের বয়স ১০ বছরের নীচে। দেশের সর্বোচ্চ আদালত সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের আদালত কক্ষে সারিবদ্ধভাবে দাঁড়িয়ে। আদালত কক্ষে উপস্থিত সকল আইনজীবীর চোখ তাদের দিকে।

আইনজীবীদের অভিব্যক্তি এমন যে এসব কোমলমতি শিশুরা কেন এখানে। আইনজীবীদের ঘোর কাটতে না কাটতেই তাদের পক্ষে দাঁড়ালেন সিনিয়র আইনজীবী অ্যাডভোকেট একেএম ফজলুল হক খান ফরিদ। তিনি এই ৫ শিশুর জামিনের আবেদন জানালেন। তার বক্তব্যের পর আদালত কক্ষে উপস্থিত আরো দুই সিনিয়র আইনজীবী অ্যাডভোকেট এজেড আই খান পান্না ও এসএম শাহজাহান স্বপ্রনোদিত হয়ে শিশুদের জামিনের আবেদন জানালেন। আদালত ঘটনা শুনে ওই ৫ শিশুকে ছয় সপ্তাহের জন্য জামিন দিয়েছেন। একইসঙ্গে এ সময়ের মধ্যে ময়মনসিংহের শিশু আদালতে তাদের আত্মসমর্পনের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। 

বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেন সেলিম ও বিচারপতি মো. রিয়াজ উদ্দিন খানের হাইকোর্ট বেঞ্চ আজ বুধবার ওই ৫ শিশুর জামিন মঞ্জুর করেন। এ সময় রাষ্ট্রপক্ষে আইনজীবী ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল হারুনুর রশিদ। 

জানা গেছে, ময়মনসিংহ জেলার কোতোয়ালী থানার কালীবাড়ি প্রিমিয়াম আইডিয়াল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেণির ছাত্র সাকিবুল হাসান অভি (৮) মারা যায় গত ৬ জুলাই। ওইদিন সন্ধ্যায় কালীবাড়ি পুরাতন গুদারাঘাট বেড়িবাঁধ নদী থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় পরদিন তার মা পারভীন (স্বামী মুসা মিয়া) থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা করেন। পরবর্তীতে গত ২৪ সেপ্টেম্বর অভির মা পারভীন কোতোয়ালী থানায় ছেলেকে হত্যার অভিযোগে ছেলের খেলার ৫ জন সাথীকে আসামি করে মামলা করেন।

মামলার অভিযোগে বলা হয়, ঘটনার দিন দুপুরে খেলার কথা বলে বাসা থেকে অভিকে ডেকে নেওয়া হয়। কিন্তু পরে ফিরে আসেনি। অনেক খোঁজাখুজির পর নদী থেকে লাশ উদ্ধার করা হয়। সন্দেহ তাকে হত্যার পর নদীতে ফেলে দেওয়া হয়েছে। এ মামলায় বুধবার হাইকোর্টে হাজির হয়ে ওই ৫ শিশু জামিনের আবেদন করে। আদালত তাদের জামিন মঞ্জুর করেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা