kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৪ নভেম্বর ২০১৯। ২৯ কার্তিক ১৪২৬। ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

সাগর-রুনি হত্যা মামলায় পরামর্শ 'অপেক্ষার'

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২০ অক্টোবর, ২০১৯ ১৮:৩৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সাগর-রুনি হত্যা মামলায় পরামর্শ 'অপেক্ষার'

সাংবাদিক দম্পতি সাগর সারোয়ার ও মেহেরুন রুনি হত্যা মামলায় তদন্তের অগ্রগতি নিয়ে হতাশ সকলে। এ প্রসঙ্গে রাষ্ট্রের প্রধান আইন কর্মকর্তা অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম বলেছেন, আমাদের দেশে এরকম অনেক মামলায়ই নির্ধারিত সময়ের মধ্যে বিচার বা তদন্ত সম্পন্ন হয়নি। তাই অপেক্ষা করুন। দেখুন, শেষ পর্যন্ত বিচারের কি হয়।

সাগর-রুনি হত্যা মামলার তদন্ত কর্মকর্তাকে আদালতের তলবসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে রবিবার নিজ কার্যালয়ে কথা বলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ' মামলার তদন্ত প্রক্রিয়া নির্ভর করে হত্যাকান্ড বা অপরাধটি কিভাবে সংঘটিত হয়েছে তার ওপর। কোনো কোনো মামলায় অপরাধ সংঘটনের সঙ্গে সঙ্গেই অপরাধী ধরা হয়। আবার কোনো কোনো মামলায় আসামিকে ধরতে অনেক দিন সময় লাগে। অপরাধের সুত্র ধরে আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়। কাজেই এটা বলা যাবে না যে সব মামলায়ই একটি নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে তদন্ত শেষ করতে হবে। একটি নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে তদন্ত শেষ নাও হতে পারে। আদালত তদন্ত কর্মকর্তাকে ডেকেছেন। এখন তদন্ত কর্মকর্তা আদালতে হাজির হয়ে কি বলেন সেটা দেখতে হবে। এরপর আদালত আদেশ দেবেন। যদি বিচার না হয় তখন এই মামলা নিয়ে মন্তব্য করা যাবে। '

২০১২ সালের ১১ ফেব্রুয়ারি নিজ বাসায় খুন হন সাগর-রুনি। এ ঘটনায় রুনির ভাই নওশের আলী রোমান বাদি হয়ে শেরেবাংলা নগর থানায় মামলা করেন। প্রথম পর্যায়ে মামলা তদন্তের দায়িত্ব পড়ে গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) ওপর। পরে হাইকোর্টের নির্দেশে মামলাটির তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয় র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নকে (র‌্যাব)। আটবছর পার হলেও মামলার তদন্ত সম্পন্ন হয়নি। আগামী ১৪ নভেম্বর নিম্ন আদালতে প্রতিবেদন দাখিলের জন্য দিন ধার্য রয়েছে। এরইমধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য ৬৮ বার সময় নিয়েছেন তদন্ত কর্মকর্তা।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা