kalerkantho

শুক্রবার । ১৫ নভেম্বর ২০১৯। ৩০ কার্তিক ১৪২৬। ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

ডিএনসিসির ভুয়া কর্মকর্তা গ্রেপ্তার

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৭ অক্টোবর, ২০১৯ ১৭:৪১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ডিএনসিসির ভুয়া কর্মকর্তা গ্রেপ্তার

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) সম্পত্তি বিভাগের জরিপ কর্মকর্তা পরিচয় দিয়ে প্রতারণার অভিযোগে মোঃ আমিনুল ইসলাম (আমিন) নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার রাজধানীর পূর্ব বাড্ডা ইউসেফ স্কুলের মেইন গেইটের সামনের রাস্তা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

আমিনুল ইসলাম নিজেকে ডিএনসিসির জরিপ কর্মকর্তা পরিচয় দিয়ে ট্রেড লাইসেন্স করে দেয়ার আশ্বাস দিয়ে বিভিন্ন লোকের কাছ থেকে অর্থ হাতিয়ে নিয়েছেন বলে অনেকেই অভিযোগ করেন। এ প্রেক্ষিতে ডিএনসিসির প্রধান সম্পত্তি কর্মকর্তা মোঃ আমিনুল ইসলাম গত বুধবার গুলশান থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন।

ভুক্তভোগী অসীম কর্মকার ডিএনসিসি অফিসে জানান, মোঃ আমিনুল ইসলাম (আমিন) জরিপ কর্মকর্তা পরিচয় দিয়ে তার কাছ থেকে ট্রেড লাইসেন্স করিয়ে দেয়ার কথা বলে ৬ হাজার টাকা নেন। অনেকদিন অতিবাহিত হলেও তাকে কোনো ট্রেড লাইসেন্স দেয়া হয়নি, এমনকি তিনি ফোনও রিসিভ করেন না। তখন সম্পত্তি বিভাগ হতে জানানো হয়, এ নামে ডিএনসিসিতে কোনো কর্মকর্তা বা কর্মচারী নাই। যদি কখনো তার সন্ধান পাওয়া যায় তাহলে ডিএনসিসিকে জানানোর জন্য অনুরোধ করা হয়।

অবশেষে অসীম কর্মকার আজ সকাল আনুমানিক ১০টায় ডিএনসিসিকে জানান যে, মোঃ আমিনুল ইসলাম (আমিন) বাড্ডা থানাধীন পূর্ব বাড্ডা ইউসেফ স্কুলের পাশে একটি ফার্মেসিতে বসা আছে। ডিএনসিসির প্রধান সম্পত্তি কর্মকর্তা তৎক্ষণাৎ বাড্ডা থানা পুলিশকে আবহিত করেন। বাড্ডা থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে সকাল সাড়ে ১০টায় তাকে পূর্ব বাড্ডা ইউসেফ স্কুলের মেইন গেইটের সামনের রাস্তা দিয়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় আটক করে। তার কাছ থেকে “মোঃ আমিনুল ইসলাম (আমিন), জরিপ কর্মকর্তা, সম্পত্তি বিভাগ, ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন” পরিচয়ের একটি কার্ড পুলিশ জব্দ করে। এ প্রেক্ষিতে বাড্ডা থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয় এবং আসামিকে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তিনি জানান, তার নাম মোঃ আমিন মিয়া, বয়স ৪৭, পিতা মোঃ আব্দুর রশিদ, মাতা আনোয়ারা বেগম, সাং দখীগঞ্জ, থানা কোতোয়ালী, জেলা রংপুর; বর্তমানে পশ্চিম উলন (মৃত হায়দার আলীর বাড়ি), থানাঃ হাতিরঝিল, ঢাকা বসবাস করেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা