kalerkantho

বুধবার । ১৩ নভেম্বর ২০১৯। ২৮ কার্তিক ১৪২৬। ১৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

স্পিকার বললেন

দারিদ্র্যের বলয় থেকে নারীদের বের করে আনতে হবে

মার্শাল টিটোর সমাধিতে স্পিকারের শ্রদ্ধা নিবেদন

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৬ অক্টোবর, ২০১৯ ২০:১৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দারিদ্র্যের বলয় থেকে নারীদের বের করে আনতে হবে

সমতাভিত্তিক বিশ্ব গড়তে আইপিইউ সদস্যভূক্ত রাষ্ট্রগুলোর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। ইন্টার পার্লামেন্টারি ইউনিয়ন (আইপিইউ) সম্মেলনে বক্তৃতালে তিনি এ আহ্বান জানান। তিনি এর আগে যুগোস্লাভিয়ার প্রয়াত প্রেসিডেন্ট মার্শাল জোসিপ ব্রজ টিটোর সমাধিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করেন।

আজ বুধবার সংসদ সচিবালয় থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে, স্পিকারের নেতৃত্বে বাংলাদেশ সংসদীয় প্রতিনিধি দলের সদস্যরা কমিউনিস্ট নেতা টিটোর স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানান এবং প্রয়াত নেতার আত্মার শান্তি কামনা করেন। পরে তারা মার্শাল টিটোর সমাধিস্থলে মিউজিয়াম পরিদর্শন করেন ও পরিদর্শন বহিতে স্বাক্ষর করেন।

এরপর স্পিকার সার্বিয়ার বেলগ্রেডে অনুষ্ঠিত ১৪১তম আইপিইউ সম্মেলনে ‘স্পিকার্স ডায়ালগ অন গভর্নেন্স : ইকোনমি অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট’ শীর্ষক সেশনে বক্তৃতা করেন।

তিনি বলেন, অর্থনৈতিক উন্নয়ন করলেই হবে না, অন্তর্ভূক্তিমূলক অর্থনৈতিক উন্নয়ন নিশ্চিত করতে হবে। অসমতা দূর করে সমতাভিত্তিক বিশ্ব গড়তে আইপিইউ সদস্যভূক্ত রাষ্ট্রগুলোর সংসদসমূহ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে।

নারীর ক্ষমতায়নের প্রতি গুরুত্বারোপ করে ড. শিরীন শারমিন বলেন, সামগ্রিক টেকসই উন্নয়ন বাস্তবায়নে নারী সমাজকে পিছিয়ে রাখলে চলবে না। দারিদ্র্যের বলয় থেকে নারীদেরকে বের করে আনতে হবে। পৃথিবীর অর্ধেক নারী জনসমষ্টিকে অবহেলা না করে তাদেরকে অর্থনীতির মূল স্রোতধারায় সম্পৃক্ত করতে হবে। তবেই অন্তর্ভূক্তিমূলক অর্থনৈতিক উন্নয়ন কার্যকর হবে।

স্পিকার বলেন, সামাজিক ও অর্থনৈতিক সকল সূচকে বাংলাদেশের অবস্থান এখন বেশ সুদূঢ়। জিডিপি প্রবৃদ্ধি ৮ শতাংশ। এটা সম্ভব হয়েছে নারীর অর্থনৈতিক ক্ষমতায়নের কারণে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে অর্থনৈতিক উন্নয়নের পাশাপাশি নারীর ক্ষমতায়নেও বাংলাদেশ বিশ্বে রোল মডেল বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা