kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৯ নভেম্বর ২০১৯। ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২১ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

ছাত্রলীগ থেকে স্থায়ী বহিষ্কার অমিত সাহা

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি    

১৫ অক্টোবর, ২০১৯ ০৯:১৮ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ছাত্রলীগ থেকে স্থায়ী বহিষ্কার অমিত সাহা

আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার দায়ে বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের উপ-আইন সম্পাদক অমিত সাহাকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করেছে সংগঠনটি। অমিত সাহার বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ অধিকতর তদন্তে প্রমাণিত হওয়ায় তাঁকে বহিষ্কার করা হয়। ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আল নাহিয়ান খান ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই বহিষ্কারের বিষয়ে জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘বুয়েটের সাম্প্রতিক অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে ছাত্রলীগ দুই সদস্যের তদন্ত কমিটি করে। কমিটির অধিকতর তদন্তে উঠে এসেছে, অমিত সাহা ওই ঘটনার সময় ঘটনাস্থলে উপস্থিত না থাকলেও সামাজিক যোগাযোগে কথোপকথনের মাধ্যমে ওই ঘটনার সঙ্গে সম্পৃক্ত ছিলেন। তাঁর বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় তাঁকে ছাত্রলীগ থেকে স্থায়ী বহিষ্কার করা হলো।’

গণস্বাক্ষর সংগ্রহ কর্মসূচি : আবরার ফাহাদ হত্যার বিচারসহ ১০ দাবিতে গণস্বাক্ষর সংগ্রহ কর্মসূচি পালন করেছেন বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থীরা। গতকাল সোমবার অনুষ্ঠিত বুয়েটের ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষা চলাকালে শহীদ মিনারের সামনে এই কর্মসূচি পালন করা হয়। এতে ভর্তি পরীক্ষা দিতে আসা শিক্ষার্থী, অভিভাবকরা স্বাক্ষর করেন। ভর্তি পরীক্ষা উপলক্ষে চলমান আন্দোলন শিথিল করে গণস্বাক্ষর কর্মসূচি পালন করেন শিক্ষার্থীরা।

এদিকে গতকাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে ভর্তীচ্ছু শিক্ষার্থীরা সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত তিন ঘণ্টার লিখিত পরীক্ষায় অংশ নেয়। আর্কিটেকচারে ভর্তীচ্ছুরা সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত লিখিত এবং দুপুর ২টা থেকে ৪টা পর্যন্ত ড্রয়িং পরীক্ষায় অংশ নেয়। শান্তিপূর্ণভাবে এই পরীক্ষা শেষ হয়েছে।

ভর্তি পরীক্ষার কয়েকটি কেন্দ্র পরিদর্শন করে উপাচার্য অধ্যাপক সাইফুল ইসলাম বলেন, ‘শিক্ষার্থীদের দাবি পূরণে আমরা কাজ করছি। চলমান আন্দোলন ভর্তি পরীক্ষায় প্রভাব ফেলেনি। প্রায় ৯০ শতাংশ শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে। আশা করছি, খুব দ্রুত চলমান সংকট কেটে যাবে।’

ফের আন্দোলন কি না সিদ্ধান্ত আজ : ভর্তি পরীক্ষা নির্বিঘ্নে শেষ হওয়ার পর এখন  ফের কর্মসূচি দেবেন, না কি ইতি টানবেন, সে বিষয়ে আজ মঙ্গলবার সিদ্ধান্ত জানাবেন বুয়েটের আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। সিদ্ধান্ত ঘোষণার আগে উপাচার্য ও ছাত্রকল্যাণ উপদেষ্টার সঙ্গে কথা বলা হবে বলেও আন্দোলনকারীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে। আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ডের পর টানা কর্মসূচিতে থাকা বুয়েট শিক্ষার্থীরা ভর্তি পরীক্ষার জন্য কর্মসূচি দুই দিন শিথিল করেন। গতকাল সোমবার সেই ভর্তি পরীক্ষা হয়ে গেছে।

কর্মসূচি স্থগিতের সময় শিক্ষার্থীরা জানিয়েছিলেন, তাঁরা আন্দোলন থেকে পিছু হটছেন না। ১০ দফা দাবির বাস্তবায়ন না হওয়া পর্যন্ত তাঁরা আন্দোলন চালিয়ে যাবেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা