kalerkantho

বুধবার । ২৩ অক্টোবর ২০১৯। ৭ কাতির্ক ১৪২৬। ২৩ সফর ১৪৪১                 

কানাডার আদালতের রায় সম্পর্কে আইনমন্ত্রী

নুর চৌধুরীকে নিয়ে কানাডা সরকারের সঙ্গে কথা বলার দ্বার উন্মোচিত হয়েছে

বিশেষ প্রতিনিধি   

২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:৫০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নুর চৌধুরীকে নিয়ে কানাডা সরকারের সঙ্গে কথা বলার দ্বার উন্মোচিত হয়েছে

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। ফাইল ছবি

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে স্বপরিবারে হত্যা মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি নুর চৌধুরীকে নিয়ে কানাডা সরকারের সঙ্গে কথা বলার দ্বার উন্মোচিত হয়েছে বলে মনে করেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক এমপি।

তিনি বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর আত্মসীকৃত খুনি নুর চৌধুরীর সম্পর্কে কথা বলার দ্বার খুলেছে এই রায়ে। তার ব্যাপারে একটি বাধা পেরিয়েছি আমরা। এখন কানাডা সরকারের কাছে নুর চৌধুরী সম্পর্কে আমাদের বক্তব্য তুলে ধরব। এই রায় নুর চৌধুরীকে ফিরিয়ে আনার ক্ষেত্রে ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে বলে মনে করি।

গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে ফোনে কালের কণ্ঠকে এ কথা বলেন আইনমন্ত্রী। যিনি বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার বিচারকালে রাষ্ট্রপক্ষে আইনজীবী ছিলেন। কানাডার আদালতে নুর চৌধুরীর বিষয়ে বাংলাদেশের করা জুডিশিয়াল রিভিউ মঞ্জুর করার বিষয়ে প্রতিক্রিয়া জানতে চাওয়া হলে তিনি একথা বলেন। 

নুর চৌধুরীর কানাডায় অবস্থান করার বিষয়ে বাংলাদেশ সরকারকে কোনো তথ্যই দিচ্ছিল না কানাডা সরকার। এ অবস্থায় গত বছর বাংলাদেশের পক্ষ থেকে নুর চৌধুরী কিভাবে কানাডায় অবস্থান করছে এবং কানাডা থেকে বহিষ্কার ঠেকাতে তাঁর করা ‘প্রি-রিমুভাল রিস্ক অ্যাসেসমেন্ট (পিআরআরএ)’ আবেদন কী পর্যায়ে রয়েছে সে বিষয়ে কোনো তথ্য দিচ্ছে না অভিযোগ করে গতবছর জুনে বাংলাদেশ ‘জুডিশিয়াল রিভিউ’ (বিচার বিভাগীয় পর্যালোচনা) আবেদন করে। এই আবেদনটি মঞ্জুর করে কানাডার সময় মঙ্গলবার (বাংলাদেশ সময় বুধবার ভোর) অটোয়ার অন্টারিওর ফেডারেল আদালতের বিচারক জেমস ও’রেইলি রায় দেন। 

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেন, নুর চৌধুরী সম্পর্কে কানাডা সরকার আমাদের কোনো কিছুই জানাচ্ছিল না। তাকে কেন থাকতে দিচ্ছে, কিভাবে রাখছে এসব তথ্য দিচ্ছিল না। সেদেশের সরকার আমাদের আবেদন খারিজ করে দেয়। এ কারণে আমরা সেদেশের আদালতে জুডিশিয়াল রিভিউ আবেদন করি। সেদেশের আদালত আমাদের আবেদন মঞ্জুর করেছে। আইনি লড়াইয়ে বাংলাদেশ জিতেছে।

এই রায়ের ফলে নুর চৌধুরীকে নিয়ে কানাডা সরকারের সঙ্গে আলোচনার দ্বার উন্মোচিত হয়েছে। এখন নুর চৌধুরীর বিষয়ে আমাদের বক্তব্য কানাডা সরকারের কাছে তুলে ধরব। আমরা কি বলতে চাই তারা তা উপলব্ধি করতে পারবে বলে মনে করি। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা