kalerkantho

মঙ্গলবার । ২২ অক্টোবর ২০১৯। ৬ কাতির্ক ১৪২৬। ২২ সফর ১৪৪১              

বছিলায় জঙ্গি আস্তানা : আবারো পেছাল প্রতিবেদন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১১:০৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বছিলায় জঙ্গি আস্তানা : আবারো পেছাল প্রতিবেদন

ফাইল ছবি।

রাজধানীর মোহাম্মদপুরের বছিলায় মেট্রো হাউজিংয়ের একটি টিনশেড বাড়িতে অভিযানে দুই জঙ্গি নিহত হওয়া এবং বিভিন্ন ধরনের বিস্ফোরকদ্রব্য ও অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় সন্ত্রাসবিরোধী আইনে করা মামলার তদন্ত প্রতিবেদন আবারো পিছিয়েছে।

প্রতিবেদন দাখিলের জন্য আগামী ১৭ অক্টোবর পরবর্তী দিন ধার্য হয়েছে। আজ মঙ্গলবার (১৭ সেপ্টেম্বর) মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের দিন ধার্য ছিল। কিন্তু তদন্তকারী কর্মকর্তা (আইও) প্রতিবেদন দাখিল না করায় ঢাকা মহানগর হাকিম জিয়াউর রহমান প্রতিবেদন দাখিলের নতুন এ দিন ধার্য করেন।

গত ২৮ এপ্রিল দিবাগত রাত তিনটার দিকে বছিলার ওই টিনশেড বাড়িতে জঙ্গিরা অবস্থান করছে এই সন্দেহে বাড়িতে ঘিরে ফেলে র‌্যাব সদস্যরা। এরপর জঙ্গিরা র‌্যাবকে উদ্দেশ্য করে বোমা বিস্ফোরণ ঘটায় ও গুলি ছোড়ে। ভোর পাঁচটার দিকে বেশ কয়েকটি বিস্ফোরণের শব্দ শোনা যায়। সকাল ১০টার দিকে বাড়িটির ভেতর র‌্যাবের বোমা নিষ্ক্রিয়করণ দল ও ডগ স্কোয়াড ঢোকে। বাড়ির ভেতর দুজন জঙ্গির ছিন্নভিন্ন মরদেহ পড়ে থাকতে দেখা যায়।

বোমা নিষ্ক্রিয়করণ দল জায়গাটিতে তল্লাশি চালায়। ঘটনাস্থল থেকে ৩টা বিদেশি পিস্তল, অবিস্ফোরিত ৪টি ইমপ্রোভাইজড এক্সপ্লোসিভ ডিভাইস (আইইডি) ও বোমার বিস্ফোরিত বেশ কিছু অংশ উদ্ধার করে তা নিষ্ক্রীয় করা হয়। ঘটনাস্থল থেকে বাড়ির কেয়ারটেকারসহ তিনজনকে আটক করে র‌্যাব। তারা হলেন- কেয়ারটেকার সোহাগ, সোহাগের স্ত্রী মৌসুমী ও স্থানীয় মসজিদের ইমাম ইউসুফ।

ওই ঘটনায় পরদিন রাতে ২৯ এপ্রিল রাতে মোহাম্মদপুর থানায় সন্ত্রাসবিরোধী আইনে মামলাটি করেন র‌্যাব-২ এর সিনিয়র ওয়ারেন্ট অফিসার মো. আবদুল্লাহ। মামলায় অজ্ঞাত পাঁচ-ছয়জনকে আসামি করা হয়। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা