kalerkantho

গুলশানে কমিউনিটি সেন্টারে ছাত্রলীগের হামলা, থানায় মামলা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৫ আগস্ট, ২০১৯ ১০:৪৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গুলশানে কমিউনিটি সেন্টারে ছাত্রলীগের হামলা, থানায় মামলা

রাজধানীর গুলশানে মানুয়েল ব্যানকুয়েট কমিউনিটি সেন্টারে হামলা, ভাঙচুর ও লুটপাটের অভিযোগ পাওয়া গেছে ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে। এতে ওই কমিউনিটি সেন্টারের ১০ কর্মচারী আহত হয়েছেন। তাদেরকে গুলশানের একটি প্রাইভেট হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

এ ঘটনায় গুলশান থানা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি ব্রাইন রোজারিও ও ঢাকা মহানগর উত্তর ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সরকার রেজওয়ান আহমেদ রিফাতসহ প্রায় ১৩-১৪ জন ছাত্রলীগের বর্তমান ও সাবেক নেতাকর্মীকে অভিযুক্ত করে মামলা দায়ের করেছেন কমিউনিটি সেন্টারটির মালিক জাহাঙ্গীর আলম।

মামলার বাদী কমিউনিটি সেন্টারের মালিক জাহাঙ্গীরের অভিযোগ, উল্লেখিত আসামিদের নেতৃত্বে ৩০ থেকে ৪০ জন হেলমেট পরে এবং ধারালো অস্ত্র নিয়ে হামলা করে। তারা ভেতরে ব্যাপক ভাঙচুর ও মারপিট করে। তাদের হামলায় সেন্টারের ৭ নিরাপত্তাকর্মীসহ ১০ জন আহত হয়। হামলার সময় কমিউনিটি সেন্টারের কিছু মালামাল খোয়া গেছে বলে জানান জাহাঙ্গীর। 

আজ রবিবার (২৫ আগস্ট) গুলশান থানার এসআই শহিদুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চত করেছেন। তিনি বলেন, গুলশান-১ এ ইমানুয়েল ব্যানকুয়েট কমিউনিটি সেন্টারে হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনায় থানায় মামলা করা হয়েছে। এতে বেশ কয়েকজন আহত হন। হামলার ঘটনায় ছাত্রলীগের নেতারা জড়িত বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

তিনি বলেন, গতকাল শনিবার দুপুরে গুলশান থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এস এম কামরুজ্জামান হামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান গত বৃহস্পতিবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে। আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে। মামলায় ব্রাইন রোজারিওর নামে রয়েছে। তবে তার পদবি উল্লেখ নেই, এ ছাড়া এজাহারে ছাত্রলীগের আরো দুইজনের নাম রয়েছে।

পুলিশ জানায়, ব্রাইন রোজারিও গুলশান থানা ছাত্রলীগের সহ সভাপতি। এ ছাড়া ঢাকা মহানগর উত্তর ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সরকার রেজওয়ান আহমেদ রিফাত ও সাবেক এক নেতার নাম রয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা