kalerkantho

ডিবি কার্যালয়ে ড্রয়ারের তালা ভেঙে ৫ হাজার পিস ইয়াবা চুরি

হোতা কনস্টেবল কারাগারে

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২২ আগস্ট, ২০১৯ ১০:২৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ডিবি কার্যালয়ে ড্রয়ারের তালা ভেঙে ৫ হাজার পিস ইয়াবা চুরি

রাজধানীর ডিবি কার্যালয়ে এক সহকারী কমিশনারের ড্রয়ারের তালা ভেঙে পাঁচ হাজার পিস ইয়াবা চুরির অভিযোগে সোহেল রানা নামের এক কনস্টেবল এখন কারাগারে। গত শুক্রবার গভীর রাতের এ ঘটনায় সোহেল রানার বিরুদ্ধে রমনা থানায় মামলা হয়েছে। গতকাল বুধবার ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করলে আদালত তাঁকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন।

পুলিশ সূত্র জানায়, গত শুক্রবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে মিন্টো রোডে ডিবি কার্যালয়ে আসেন কনস্টেবল সোহেল রানা। সেখানে সহকারী কমিশনারের কক্ষের ঢুকে ড্রয়ারে আলামত হিসেবে রাখা পাঁচ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট হাতিয়ে নেন। পরে তিনি সেখান থেকে বেরিয়ে রিকশাযোগে শহীদ ক্যাপ্টেন মনসুর আলী সরণির দিকে চলে যান। পরদিন শনিবার সকালে ডিবির এএসআই আবু সুফিয়ান ডিউটি শুরুর আগে ডিবির জ্যাকেট নেওয়ার জন্য অফিসে গিয়ে দরজার সামনের বারান্দার সিলিং ও ভেতরে দক্ষিণ কোণের সিলিং খোলা দেখতে পান। ঘটনাটি তিনি সহকারী কমিশনার মজিবর রহমানকে জানান। পরে কক্ষে গিয়ে দেখা যায়, মজিবর রহমানের কক্ষের থাই অ্যালুমিনিয়ামের তৈরি দরজা ও তিনটি ড্রয়ারের তালা ভাঙা।

ঘটনার তদন্তে নেমে ডিবি অফিসের ক্লোজড সার্কিট ক্যামেরার ভিডিও ফুটেজ পর্যবেক্ষণে এই চুরির ঘটনায় কনস্টেবল সোহেল রানাকে শনাক্ত করা হয়। কনস্টেবল সোহেল রানা জিজ্ঞাসাবাদে ঘটনার দায় স্বীকার করেন। পরে চুরি করা ইয়াবাগুলো তাঁর বাসা থেকে উদ্ধার করা হয়।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা শাহাবুদ্দিন খলিফা সাংবাদিকদের জানান, গত ৩০ জুলাই গেণ্ডারিয়া থানায় একটি মাদক মামলা হয়। চারজন আসামির কাছ থেকে ওই পাঁচ হাজার পিস ইয়াবা জব্দ করা হয়। সেগুলো মামলার আলামত হিসেবে ডিবিতে রাখা ছিল। আদালতে ওই আলামত ধ্বংসের আবেদন করা হয়েছে। অনুমতি পেলে ইয়াবাগুলো আদালতে পাঠানো হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা