kalerkantho

সাংবাদিক নেতৃবৃন্দের বিবৃতি

আদালতের অভিমত ইতিহাসে স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২০ আগস্ট, ২০১৯ ১৮:৫০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আদালতের অভিমত ইতিহাসে স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে

নবম ওয়েজবোর্ডের রোয়েদাদের গেজেট প্রকাশের ওপর দুই মাসের স্থিতাবস্থা (স্ট্যাটাসকো) দিয়ে হাইকোর্টের দেওয়া আদেশ আজ মঙ্গলবার সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগ আট সপ্তাহের জন্য স্থগিত করে দেওয়ায় ন্যায় প্রতিষ্ঠিত হয়েছে।

আজ এক যুক্ত বিবৃতিতে সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ বলেন, মাননীয় আদালত ‘সাংবাদিক ছাড়া গণমাধ্যম মালিকরা অস্তিত্বহীন’ বলে যে অভিমত ব্যক্ত করেছেন, তা সংবাদপত্র শিল্প ও সাংবাদিকতার মর্যাদাকে সুনিশ্চিত করেছে। ইতিহাসে আদালতের এই অভিমত স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে।

বিবৃতিতে সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ ওয়েজবোর্ড সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির আহবায়ক সড়ক ও সেতুমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এবং কমিটির সকল সদস্য, তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ, তথ্য সচিবসহ মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের ধন্যবাদ জানিয়ে আদালতের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

বিএফইউজে-বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি মোল্লা জালাল, ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব আবদুল মজিদ, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের (ডিইউজে) ভারপ্রাপ্ত সভাপতি খন্দকার মোজাম্মেল হক, সাধারণ সম্পাদক সোহেল হায়দার চৌধুরী, সংবাদপত্র কর্মচারি ফেডারেশনের সভাপতি মতিউর রহমান তালুকদার, মহাসচিব খায়রুল ইসলাম, ফেডারেল ইউনিয়ন অব নিউজপেপার প্রেস ওয়ার্কার্স সভাপতি আলমগীর হোসেন খান, মহাসচিব কামালউদ্দিন এক যুক্ত বিবৃতিতে এসব কথা বলেন।

বিবৃতিতে আইনি বাধা আর না থাকায় দ্রুত নবম ওয়েজবোর্ড রোয়েদাদের ঘোষণা দেওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অনুরোধ জানান নেতৃবৃন্দ।

তারা বলেন, ওয়েজবোর্ড একটি আইন। গত প্রায় ৩০ বছর ধরে ওয়েজবোর্ডের বিধি বিধান অনুসরণ করেই সংবাদপত্র শিল্পের বিকাশ ঘটেছে।

নেতৃবৃন্দ সরকারকে সংসদের আগামী অধিবেশনে গণমাধ্যম কর্মী আইন পাশ করার জোর দাবি জানিয়ে বলেন, ওই আইন পাশ হলে সংবাদপত্র, সংবাদ সংস্থা, টেলিভিশন ও অনলাইন মিডিয়ার সাংবাদিক, শ্রমিক-কর্মচারীদের জীবন-জীবিকা ও মর্যাদা নিশ্চিত হবে, পাশাপাশি মালিক পক্ষও লাভবান হবে। গণমাধ্যমে স্বস্তি ফিরে আসবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা