kalerkantho

চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফেরা ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা বাড়ছে

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৮ আগস্ট, ২০১৯ ১৭:০৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফেরা ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা বাড়ছে

চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৮৬ শতাংশ ডেঙ্গু রোগী। চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফেরা রোগীর সংখ্যা বাড়ছে।

চলতি বছরের শুরু থেকে আজ রবিবার পর্যন্ত ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে হয়েছেন ৫৩ হাজার ১৮২ জন। আর চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৪৫ হাজার ৯৭৪ জন।

আজ রবিবার ডেঙ্গু পরিস্থিতি নিয়ে আয়োজিত নিয়মিত পর্যালোচনা সভায় স্বাস্থ্য অধিদফতর এই তথ্য জানায়।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদের সভাপতিত্বে সভায় রোগ নিয়ন্ত্রণ শাখার পরিচালক অধ্যাপক ডা. সানিয়া তহমিনা, হেলথ ইমারর্জেন্সি অপারেশন্স সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের সহকারী পরিচালক ডা. আয়েশা আক্তার, ডেঙ্গু বিষয়ক কার্যক্রমের প্রেগ্রাম ম্যানেজার ডা. এম এম আক্তারুজ্জামান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ইমার্জেন্সি অপারেশনস সেন্টার ও কন্ট্রোল রুম থেকে প্রাপ্ত প্রতিবেদনে থেকে জানাগেছে, গত ২৪ ঘন্টায় সারাদেশে নতুন ১ হাজার ৭০৬ জন ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন এবং (১৭ ও ১৮) তারিখ ২ হাজার ৩৯৪ জন ছাড়প্রাপ্ত নিয়েছেন। যার মধ্য ঢাকার বিভিন্ন হাসপাতালে ৭৩৪ জন এবং ঢাকার বাহিরে ভর্তি হয়েছেন ৯৭২ জন। পয়লা জানুয়ারি থেকে এ পর্যন্ত ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৪০ জন।

এছাড়াও ঢাকার ৪০টি সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যা ৩ হাজার ৬৬৮ জন। ঢাকার বাইরে বিভিন্ন হাসপাতালে ৩ হাজার ৫০০ জন ভর্তি রয়েছেন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, গত ২৪ ঘণ্টায় ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ৯৭, মিটফোর্ড হাসপাতালে ৯৩, ঢাকা শিশু হাসপাতালে ১৯, শহীদ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে ৫২, বিএসএমএমইউতে ৩৬, পুলিশ হাসপাতাল রাজারবাগে ২১, মুগদা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ৬১, বিজিবি হাসপাতাল পিলখানায় ৩, সম্মলিত সামরিক হাসপাতালে ২১, কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ৫০ এবং অন্যান্য হাসপাতাল (নিটোর) ৪ জন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হয়েছেন।

ঢাকা বিভাগের বিভিন্ন হাসপাতালে (ঢাকা শহর ছাড়া) ২৫২ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ১৮৮ জন, খুলনা বিভাগে ১৩৩ জন, রংপুর বিভাগে ৬৩ জন, রাজশাহী বিভাগে ১২০ জন, বরিশাল বিভাগে ১৪০ জন, সিলেট বিভাগে ১৯ জন ও ময়মনসিংহ বিভাগে ৫৭ জন ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত রোগী ভর্তি হন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা