kalerkantho

মঙ্গলবার। ২০ আগস্ট ২০১৯। ৫ ভাদ্র ১৪২৬। ১৮ জিলহজ ১৪৪০

মানুষের পাশে দাঁড়ানোই বড় রাজনীতি : নৌপ্রতিমন্ত্রী

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৪ আগস্ট, ২০১৯ ২১:২২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মানুষের পাশে দাঁড়ানোই বড় রাজনীতি : নৌপ্রতিমন্ত্রী

অতীতের অভিজ্ঞতার আলোকে কিছু পদক্ষেপ নেওয়ায় ঈদযাত্রায় নৌপথে যাত্রী পারাপারে নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। বলেছেন, নৌপথে যাত্রী পারাপারে আমরা সন্তুষ্ট। পুরোপরি না হলেও অসন্তুষ্ট নই।

আজ বুধবার মন্ত্রণালয়ে ঈদ শুভেচ্ছা শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে সন্তোষ প্রকাশ করে তিনি এ কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, বিশেষ করে নৌপথে ফেরিতে জট ছিল না। ঈদে ফেরির কর্মকর্তা-কর্মচারীরা বিশ্রাম করেননি। তারা যাত্রীসেবায় নিজেদের বিশ্রামকে উৎসর্গ করেছেন। ফেরিতে সিরিয়াল মেইনটেনের ব্যাপারে বেশ তৎপর থাকায় বড় ধরনের কোনো সমস্যা হয়নি।

তিনি বলেন, নির্বিঘ্নে যাত্রী পারাপারে মন্ত্রণালয় সবসময় সচেষ্ট ছিল এবং থাকবে। তিনি ঈদ শেষে ফিরতি পথে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে লঞ্চে না ওঠার জন্য যাত্রীদের পরামর্শ দেন। তাদের চিন্তা করে পদক্ষেপ নেওয়া এবং সতর্কতার সাথে চলাচল করার অনুরোধ জানান।

খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেন, এডিস মশা ও ডেঙ্গু জ্বর নিয়ে মানুষের মধ্যে অস্থিরতা আছে। কিন্তু ঈদের আনন্দের কমতি দেখিনি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার সঠিকভাবে দেশ পরিচালনা করছে। ২০ হাজারের মতো ডেঙ্গু রোগী সেবা পাচ্ছে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ নিরাপদ দেশ, এখানে নিরাপত্তাহিনতার কিছু নেই। রেল ও সড়ক পথে কিছুটা সমস্যা থাকলেও আকাশপথে কোনো ফ্লাইট চলাচলে সমস্যা হয়নি। সড়কপথে টাঙ্গাইলের সমস্যাটি মূলত বঙ্গবন্ধু সেতুতে ম্যানুয়াল পদ্ধতিতে টোল আদায় ও গরুবাহী ট্রাক পারাপারের কারণে। ভবিষ্যতে বঙ্গবন্ধু সেতুতে টোল আদায়ে অটোমেশন পদ্ধতি চালু হলে এ সমস্যা অনেকটা কমে আসেব।

কোরবানির পশুর চামড়ার বিষয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন, বাণিজ্য মন্ত্রণালয় কাঁচা চামড়া রপ্তানির সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আশা করা যায় সমস্যা থাকবে না।

তিনি বলেন, কোনো কোনো রাজনৈতিক দলের নিজেদের কর্মকাণ্ড পরিচালনায় সংকট রয়েছে। নিজেদের সংকট চাপাতে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে রাজনীতি করছে। এসব নিয়ে রাজনীতি করার কিছু নেই। মানুষের পাশে দাঁড়ানোটাই হলো বড় রাজনীতি।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. আবদুস সামাদ উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা