kalerkantho

রবিবার। ১৮ আগস্ট ২০১৯। ৩ ভাদ্র ১৪২৬। ১৬ জিলহজ ১৪৪০

ঢাবিতে বিক্ষোভরত শিক্ষার্থীদের দেওয়া তালা ভাঙলো ছাত্রলীগ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৩ জুলাই, ২০১৯ ১৯:২২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ঢাবিতে বিক্ষোভরত শিক্ষার্থীদের দেওয়া তালা ভাঙলো ছাত্রলীগ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভূক্ত রাজধানীর সরকারি সাত কলেজের অধিভূক্তি বাতিলের দাবিতে বিক্ষোভরত শিক্ষার্থীদের অবস্থান পণ্ড করে তাদের ঝুলানো তালা ভেঙে প্রশাসনিক ভবনে ঢুকেছে ছাত্রলীগ।

আগামীকাল বুধবার থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সবধরনের ক্লাস-পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার জন্য শিক্ষার্থীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে তারা। এদিন বিশ্ববিদ্যালয়ের কোনো ভবনে কেউ তালা দিলে বা ক্লাস-পরীক্ষায় বাধা দিলে তা প্রতিহতেরও ঘোষণা দেন।

মঙ্গলবার অচলাবস্থা ভেঙে বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্লাস-পরীক্ষা সচলের দাবিতে সমাবেশ করে ছাত্রলীগ। সমাবেশের পর বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন ভবন ও গেইটে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ঝুলানো তালা ভেঙে ফেলে এবং উপাচার্য কার্যালয়ে গিয়ে ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য বরারর স্মারকলিপি দেয় তারা।

এদিকে মঙ্গলবার দুপুর ২টার দিকে ছাত্রলীগ সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানীর নেতৃত্বে একদল নেতা-কর্মী তাদের বাধা দেয় বলে আন্দোলনকারীদের অভিযোগ।

ছাত্রলীগ সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার পরিবেশ চলমান রাখার জন্য আমাদের আজকের প্রোগ্রাম। বাংলাদেশ ছাত্রলীগ সাধারণ শিক্ষার্থীদের অধিকার আদায়ে সবসময় কাজ করছে। সাত কলেজ কোনো বিষয় না। আমাদের দাবি শিক্ষার মানোন্নয়ন। আমাদের শিক্ষার মানোন্নয়ন হচ্ছে না। যেহেতু এগুলো আলোচনার মাধ্যমে সামাধান করতে হবে। তাই কাল থেকে আমরা ক্লাস করব।

ডাকসুর জিএস ও ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী বলেন, সমাধান হবে আলোচনার মাধ্যমে। আমরা দেখলাম যে তালা বিশ্ববিদ্যালয়ে লাগানো হয়েছে। সেই তালা আগের দিন রাতেই ডাকসুর সমাজসোব সম্পাদকের কাছে দেওয়া হয়েছে। সেই তালা ও শিকল নিয়ে ক্যাম্পাসে তালা দিয়েছে ডাকসুর ওই সম্পাদক।

আন্দোলনকারীদের মুখপাত্র ব্যবস্থাপনা বিভাগের ছাত্র মো. শাকিল মিয়া বলেন, ছাত্রলীগ জোরপূর্বক রেজিস্ট্রার বিল্ডিংয়ের তালা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করে। সেখানে আমাদের আন্দোলনে সমর্থনকারী ডাকসুর সমাজসেবা সম্পাদক ও কয়েকজন মেয়ে ছিল। ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা তাদের মারধর করে এবং তাদের উপর হামলা চালায়।

এর আগে বেলা ১টায় অপরাজেয় বাংলায় সমাবেশে সাত কলেজের সংকট নিরসনের স্থায়ী সমাধান করার দায়িত্ব নিয়ে আগামীকাল থেকে শিক্ষা কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে চলতে দিতে শিক্ষার্থী ও প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানায় ছাত্রলীগ।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা