kalerkantho

শনিবার । ৩১ শ্রাবণ ১৪২৭। ১৫ আগস্ট ২০২০ । ২৪ জিলহজ ১৪৪১

'ভেজাল নিয়ন্ত্রণে সরকার জিরো টলারেন্স নীতিতে এগোচ্ছে'

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৬ জুলাই, ২০১৯ ১৬:২৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



'ভেজাল নিয়ন্ত্রণে সরকার জিরো টলারেন্স নীতিতে এগোচ্ছে'

নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিত করতে ভ্রাম্যমাণ আদালত যাতে সারাবছর বাজার মনিটরিং করতে সে বিষয়ে খেয়াল রাখতে জেলা প্রশাসকদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি।

আজ মঙ্গলবার সচিবালয়ের সম্মেলন কক্ষে ডিসি সম্মেলনের তৃতীয় অধিবেশনে যোগদান শেষে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন। এ সম্মেলনের সভাপতিত্ব করেন মন্ত্রী পরিষদ মোহাম্মদ শফিউল আলম।

ভেজাল ও নকল প্রতিরোধে ডিসিদের কি নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, সরকার ভেজাল ও নকল নিয়ন্ত্রণে ‘জিরো টলারেন্স’ নীতিতে এগোচ্ছে। সে জন্যই নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিত করতে ভ্রাম্যমাণ আদালত যাতে সারাবছর চলে এবং বাজার মনিটরিং করা হয় সে বিষয়ে খেয়াল রাখতে ডিসিদের নির্দেশ দিয়েছি।

এ ছাড়াও খাদ্যপণ্যের সরবরাহ কম দেখিয়ে কোনো ব্যবসায়ী যেন অতিরিক্ত মুনাফা করতে না পারে সে বিষয়টি তদারকি করতে ডিসিদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, আগামী ১৫ দিনের মধ্যে পেঁয়াজ, আদা ও রসুনের দাম সাধারণ মানুষের ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে চলে আসবে। আপনারা জানেন যে, ভারতে থেকে পেঁয়াজ এবং আদা, চীন থেকে রসুন আমদানি করা হয়। এই দুই দেশেই প্রচুর বৃষ্টিপাতে এই ফসলের ক্ষতি হয়েছে। ফলে দাম কিছুটা বেড়েছে।

টিপু মুনশি বলেন, গত রমজানে নিত্যপণ্যের দাম নিয়ন্ত্রণে ছিল। সেখানে আমাদের উদ্যোগের কিছু সফলতা পেয়েছি। তবে এখন যে অবস্থা সেখানে দেখা গেছে দুই একটি পণ্যের দাম বেড়েছে। বিশেষ করে পিঁয়াজ-আদা-রসুনের দাম। এজন্য জেলা প্রশাসকদের বলা হয়েছে বাজারে যাতে জিনিসপত্রের দাম না বাড়ে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা