kalerkantho

মঙ্গলবার। ১৬ জুলাই ২০১৯। ১ শ্রাবণ ১৪২৬। ১২ জিলকদ ১৪৪০

ঢাকায় স্মার্টফোন কিনলেন সাংবাদিক, বাসায় সিম লাগানোকালে বিস্ফোরণ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৫ জুন, ২০১৯ ১৫:৩৮ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ঢাকায় স্মার্টফোন কিনলেন সাংবাদিক, বাসায় সিম লাগানোকালে বিস্ফোরণ

নতুন ফোনে সিমকার্ড লাগানোর জন্য কেসিং খুলতেই হাতের মধ্যেই বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। আজ মঙ্গলবার সকালে রাজধানীতে এমন ঘটনা ঘটেছে। তবে এ ঘটনায় কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

মোবাইলের ক্রেতা দৈনিক মানব কণ্ঠের সিনিয়র রিপোর্টার জাহাঙ্গীর কিরণ তার ফেসবুকে মোবাইল বিস্ফোরণের কয়েকটি ছবি পোস্ট করে লেখেন, 'গতকাল রাতে বসুন্ধরা মার্কেট থেকে শাওমির একটা স্মার্ট ফোন কিনে আনলাম। সকালে সিম সেট করার জন্য মোবাইল খুলতেই হাতের মধ্যে ব্লাস্ট হয়ে গেল। আগুন আর ধোঁয়ায় মুহূর্তেই অন্ধকার হয়ে গেল পুরো ঘর। হাতে সামান্য একটু লাগলেও বড় ধরনের দূর্ঘটনা থেকে আল্লাহ হেফাজত করেছেন। আলহামদুলিল্লাহ।'

জাহাঙ্গীর কিরণ জানান, সোমবার (২৪ জুন) রাতে বসুন্ধরা সিটির নিচতলার শাওমির অফিশিয়াল শো-রুম থেকে রেডমি গো মডেলের একটি স্মার্টফোন কিনে বাসায় আনি। বিক্রেতার পরামর্শ অনুযায়ী তা চার্জ দিই। সকালে স্মার্টফোনটিতে সিমকার্ড লাগানোর জন্য পেছনের কেসিং খুলতেই ব্যাটারিতে ধোঁয়া দেখতে পাই। তখনই এতে বিস্ফোরণ হয় এবং আগুন ধরে যায়। মুহূর্তেই ঘর ধোঁয়ায় ছেয়ে যায়। আল্লাহর রহমতে বড় দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেয়েছি। 

শাওমি কর্তৃপক্ষ জানান, 'শাওমিতে আমরা গ্রাহকদের নিরাপত্তাকে সর্বাধিক গুরুত্ব দেই এবং তাই ইন্ডাস্ট্রির সর্বোচ্চ মান নিশ্চিতের জন্য আমাদের সব ডিভাইস কঠোর মান পরীক্ষার মধ্য দিয়ে যায়। আমরা সম্মানিত এই গ্রাহকের সাথে যোগাযোগ করেছি এবং পুরো বিষয়টি খতিয়ে দেখার জন্য তাকে ডিভাইসটি হস্তান্তর করতে অনুরোধ করেছি। এই সমস্যা সমাধানের জন্য এই ঘটনাটির কারণ সম্পর্কে জানতে সঠিকভাবে তদন্ত করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তবে, শাওমি টিম একাধিক সমাধান অফার করা স্বত্বেও ঐ গ্রাহক ডিভাইসটি হস্তান্তরে অসম্মতি জানান। আমরা দ্রুত ডিভাইসটি হাতে পাওয়ার চেষ্টা করছি এবং আমরা কোন আপডেট পেলে যত দ্রুত সম্ভব নতুন তথ্য শেয়ার করবো। ডিভাইসটি হাতে না আসা পর্যন্ত আমরা কোন মন্তব্য করতে পারছি না এবং কোন পদক্ষেপও নিতে পারছি না। শাওমি পণ্য, সেবা ও কাজের মাধ্যমে গ্রাহকদের সন্তুষ্টি অর্জনের জন্য কাজ করে যাচ্ছে এবং এর জন্য কঠোর পরিশ্রম অব্যাহত রাখবে।'

তবে শাওমির এমন আশ্বাসে আশ্বস্ত হতে পারছেন না বিস্ফোরিত ডিভাইসের ক্রেতা জাহাঙ্গীর কিরণ। তিনি বলেন, তারা (শাওমি) আমাকে বিস্ফোরিত হ্যান্ডসেট নিয়ে নতুন হ্যান্ডসেট দেওয়ার প্রস্তাব করেছে। কিন্তু আমি রাজি হইনি। আমি শাওমি-ই আর ব্যবহার করবো না। এই মুহূর্তে প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নেওয়ার বিষয়ে ভাবছি। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা