kalerkantho

সোমবার । ২২ জুলাই ২০১৯। ৭ শ্রাবণ ১৪২৬। ১৮ জিলকদ ১৪৪০

ফিটনেস-লাইসেন্সের তথ্য দিতে না পারায় বিআরটিএ পরিচালককে আদালতের তিরস্কার

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৪ জুন, ২০১৯ ১২:৩০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ফিটনেস-লাইসেন্সের তথ্য দিতে না পারায় বিআরটিএ পরিচালককে আদালতের তিরস্কার

দেশের সড়কে ফিটনেসবিহীন গাড়ি ও লাইসেন্সহীন ড্রাইভারদের বিষয়ে সঠিক তথ্য দিতে না পারায় বিআরটিএর পরিচালক শেখ মোহাম্মদ মাহবুব-ই রাব্বানীকে তিরস্কার করেছেন হাইকোর্ট।

আজ সোমবার বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) পরিচালক (রোড সেফটি) শেখ মোহাম্মদ মাহবুব-ই রাব্বানীকে তলব করেছিলেন হাইকোর্ট। সকালে বিআরটিএর এই পরিচালক আদালতে হাজির হন। কিন্তু তিনি ফিটনেসবিহীন গাড়ি ও লাইসেন্সহীন ড্রাইভারদের বিষয়ে সঠিক তথ্য দিতে পারেননি।

এরপর ২৩ জুলাই এ বিষয়ে শুনানির দিন ধার্য করেন আদালত। হাইকোর্টের বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কে এম হাফিজুল আলমের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এই দিন ঠিক করেন।

সঠিক তথ্য দিতে না পারায় তিরস্কার করে আদালত বলেছেন, আমরা স্বাধীনতা অর্জন করেছি কি দেশের সড়কে বেহাল দশার জন্য। সিঙ্গাপুরের দিকে তাকান। আমাদের কাছাকাছি সময়ে স্বাধীনতা অর্জন করার পরও তারা কত উন্নতি করেছে। সিঙ্গাপুরে কি বাংলাদেশের মতো দুর্ঘটনা ঘটে? বাংলাদেশে কেন এত দুর্ঘটনা ঘটছে? আমেরিকায় কি দুর্ঘটনা ঘটছে? ইংল্যান্ডে কি দুর্ঘটনা ঘটছে?

আদালত ক্ষোভ প্রকাশ করে আরও বলেন, বিআরটিএ ছাড়াও দেশে পুলিশ আছে, পুলিশের নাকের ডগার ওপর দিয়ে এসব অনিয়ম হচ্ছে।

বিআরটিএর পরিচালকের উদ্দেশ্যে আদালত বলেন, অফিসে বসে বসে শুধু কি চা খাইলে হবে? দেশপ্রেম থাকতে হবে। বিআরটিএ কি করে? আমরা কেন ডাকবো, তাদের (বিআরটিএ) ডাকতে হবে কেন? তারা (বিদেশিরা) পারছে, আমরা পারছি না কেন?

রাজধানীর সড়কে ফিটনেসবিহীন ৭০ হাজার গাড়ি চলাচলের কারণ ব্যাখ্যা দিতে তাকে আজ হাইকোর্টে তলব করা হয়েছিল। গত ২৭ মার্চ হাইকোর্ট এই তলব করেছিলেন। এ বিষয়ে ব্যাখ্যা দেয়ার জন্য প্রথমে গত (৩০ এপ্রিল) তারিখ ধার্য ছিল। এরপর ওই তারিখ পরিবর্তন করে তাকে আজ (২৪ জুন) স্বশরীরে উপস্থিত হয়ে এর ব্যাখ্যা দিতে বলা হয়।

খবরটি ইউনিকোড থেকে বিজয়ে নিতে ব্যবহার করুন কালের কণ্ঠের বাংলা কনভার্টার-
https://www.kalerkantho.com/home/converter

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা