kalerkantho

শুক্রবার । ১৯ জুলাই ২০১৯। ৪ শ্রাবণ ১৪২৬। ১৫ জিলকদ ১৪৪০

জিনগত কারণে ভারত-বাংলাদেশের মানুষের হৃদরোগের ঝুঁকি বেশি : দেবী শেঠি

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৫ জুন, ২০১৯ ২২:১১ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



জিনগত কারণে ভারত-বাংলাদেশের মানুষের হৃদরোগের ঝুঁকি বেশি : দেবী শেঠি

ভারতের খ্যাতনামা হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. দেবী প্রসাদ শেঠি জানিয়েছেন, জিনগত কারণে ভারত-বাংলাদেশের মানুষ বেশি হৃদরোগের ঝুঁকিতে থাকে। চট্টগ্রামে ইমপেরিয়াল হসপিটালের উদ্বোধন করে তিনি আজ সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন।

আজ শনিবার দুপুরে চট্টগ্রামে ইমপেরিয়াল হসপিটালের উদ্বোধন শেষে এ কথা বলেন ডা. শেঠি।

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ-ভারতের মানুষের জিনগত বৈশিষ্ট্য প্রায় একই। এ কারণেই এখানকার মানুষ হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকিতে বেশি থাকেন। ইংল্যান্ড বা ইউরোপের লোকজনের হৃদরোগ হয় অবসরকালীন সময়ে অথবা ষাটোর্ধ বয়স হলে। কিন্তু ভারত-বাংলাদেশে তরুণদের মধ্যেও এ রোগ দেখা দেয়, এর প্রধান কারণ জিনগত। এখানকার মানুষের জীবনধারা, খারাপ খাবার গ্রহণ, নিয়ন্ত্রণহীন ডায়াবেটিস, ধুমপান প্রি মেচিউর হার্ট অ্যাটাকের কারণ।

ভারত-বাংলাদেশের মানুষের শারীরিক অনুশীলন বা ব্যায়ামের অভ্যাস নেই জানিয়ে  দেবী শেঠি বলেন, এসব কারণে বিশ্বের অন্যান্য অঞ্চলের তুলনায় ভারত-বাংলাদেশে হৃদরোগের হার বেশি।

ভারত ও বাংলাদেশের চিকিৎসাসেবার মান প্রায় একই উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘আমি কোনো পার্থক্য দেখি না।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা