kalerkantho

রবিবার। ১৬ জুন ২০১৯। ২ আষাঢ় ১৪২৬। ১২ শাওয়াল ১৪৪০

স্পিকার জানালেন

সরকার জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবেলায় বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২২ মে, ২০১৯ ১৭:২৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সরকার জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবেলায় বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছে

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী এমপি বলেছেন, জলবায়ু পরিবর্তনে সৃষ্ট বিরূপ প্রভাব মোকবেলায় সরকার ইতোমধ্যে বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছে। জলবায়ু পরিবর্তন ট্রাস্ট ফান্ড গঠন ও এ বিষয়ে বিশেষ ভূমিকার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে জাতিসংঘ চ্যাম্পিয়ন অব দ্য আর্থ পুরস্কারে ভূষিত করেছে।

আজ বুধবার দুপুরে ফ্রান্স ন্যাশনাল পার্লামেন্টের সদস্য ও ফ্রান্স বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশিপ গ্রুপের চেয়ারম্যান ড্যানিয়েল ওবোনোকে ভিডিও কনফারেন্সে এ তথ্য জানান।

ভিডিও কনফারেন্সে তারা জলবায়ু পরিবর্তনের বিরুপ প্রভাব মোকাবেলায় বাংলাদেশের প্রস্তুতি ও জলবায়ু পরিবর্তন সংশ্লিষ্ট বিরুপ প্রভাব মোকাবেলায় সংসদীয় স্থায়ী কমিটির ভূমিকা নিয়ে আলোচনা করেন।

এ সময় স্পিকার বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের বিরুপ প্রভাবে ঝুঁকিপূর্ণ দেশগুলোর মধ্যে ৬ষ্ঠ স্থানে বাংলাদেশ। এই ঝুঁকি মোকাবেলায় বাংলাদেশ প্রাকৃতিক দুর্যোগের পূর্বাভাস সম্প্রচার, ঘূর্ণিঝড় আশ্রয়কেন্দ্র স্থাপন, উপকূলীয় এলাকায় বসবাসকারী মানুষকে যথা সময়ে নিরাপদ স্থানে স্থানান্তর, দ্রুত ত্রাণ সামগ্রী সরবরাহ, উপকূলীয় বাঁধ তৈরি, লবণাক্ত ও খরা সহিষ্ণু ফসলের জাত উদ্ভাবন, বাঁধ ও বাঁধ সংলগ্ন চর এলাকায় বনায়নের মাধ্যমে সবুজ বেষ্টনী সৃষ্টি, জলবায়ু ট্রাস্ট ফান্ড গঠন ইত্যাদি পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। এক্ষেত্রে বাংলাদেশ নিজস্ব অর্থায়নেই অনেক সমস্যার সমাধা করছে।

এ সময় ড্যানিয়েল ওবোনো বলেন, জলবায়ুর পরিবর্তনজনিত ক্ষতি মোকাবেলায় পর্যাপ্ত উদ্যোগ গ্রহণ না করলে সবচেয়ে বেশি ক্ষতির শঙ্কা বাংলাদেশের। তাই আন্তর্জাতিক ও আঞ্চলিক পরিমণ্ডলে বাংলাদেশকে সোচ্চার হতে হবে।

তিনি জলবায়ুর প্রভাব মোকাবেলায় বাংলাদেশের ভূমিকার প্রশংসা করেন এবং বাংলাদেশের অভিযোজন অভিজ্ঞতা থেকে ঝুঁকির মুখে থাকা রাষ্ট্রসমূহ শিক্ষা নিতে পারে বলে উল্লেখ করেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা