kalerkantho

রবিবার। ১৬ জুন ২০১৯। ২ আষাঢ় ১৪২৬। ১২ শাওয়াল ১৪৪০

বিজিএমসির সামনে বিক্ষোভে মনজুরুল আহসান খান

পাটশিল্প ধ্বংসের ষড়যন্ত্র প্রতিরোধ করা হবে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৯ মে, ২০১৯ ১৯:২১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পাটশিল্প ধ্বংসের ষড়যন্ত্র প্রতিরোধ করা হবে

দেশের প্রগতিশীল ট্রেড ইউনিয়ন সমূহের জাতীয় জোট ‘শ্রমজীবী ও শিল্প রক্ষা আন্দোলন’-এর আহ্বায়ক শ্রমিকনেতা মনজুরুল আহসান খান পাটশিল্প ধ্বংসের সকল ষড়যন্ত্র প্রতিরোধ করার ঘোষণা দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, পরিকল্পিতভাবে দেশের পাটশিল্প ধ্বংসের ষড়যন্ত্র চলছে। পাটকল বন্ধে বেসরকারিকরণের নয়া উদারনীতিবাদী প্রকল্প বহু আগে থেকে চলমান আছে। আর সরকার মুখে জাতীয় শিল্প রক্ষার কথা বললেও বাস্তবে পাটশিল্প ধ্বংসের প্রকল্পই বাস্তবায়ন করে চলেছে।

আজ রবিবার দুপুরে বাংলাদেশ পাটশিল্প কর্পোরেশনের সামনে বিক্ষোভ কর্মসূচি চলাকালে আয়োজিত সমাবেশে তিনি একথা বলেন।

সামাবেশে আরো বক্তৃতা করেন শ্রমজীবী ও শিল্প রক্ষা আন্দোলনের সদস্য সচিব হারুনার রশীদ ভূঁইয়া, জাতীয় শ্রমিক জোটের সভাপতি আব্দুল কাদের হাওলাদার, গার্মেন্ট শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্রের সাধারণ সম্পাদক জলি তালুকদার, বাংলাদেশ জাতীয় শ্রমিক ফেডারেশনের সহ-সভাপতি রফিকুল ইসলাম পথিক, শ্রমিকনেতা সাদেকুর রহমান শামীম, হযরত আলী, মাহাতাব উদ্দিন শহীদ, শাহাবুদ্দিন আহমেদ প্রমুখ।

আন্দোলনরত পাটকল শ্রমিকদের সকল বকেয়া ২০ রমজানের মধ্যে পরিশোধের দাবি জানিয়ে মনজুরুল আহসান খান বলেন, পাটকলে আধুনিক উৎপাদন প্রযুক্তি সংযোজন ও যুগোপযোগী পণ্য উৎপাদন না করা, দুর্নীতিকে প্রশ্রয় দেওয়া, প্রয়োজনীয় অর্থ বরাদ্দ না করা ইত্যাদির মাধ্যমে পাটশিল্পকে ধীরে ধীরে রুগ্ন করা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, পাটশিল্পের সাথে শ্রমিকের স্বার্থ, কৃষকের স্বার্থ এবং জাতীয় স্বার্থ নিবিড়ভাবে জড়িত। তাই রাষ্ট্রায়ত্ত পাটশিল্প ধ্বংসের সকল চক্রান্ত এদেশের মানুষ প্রতিহত করবে। শ্রমিকদের যদি রাস্তায় ঈদ করতে হয় তাহলে শ্রমিকরা কাউকেই ঈদ করতে দেবে না বলেও তিনি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন।

বিক্ষোভ সামবেশ শেষে একটি প্রতিনিধি দল বাংলাদেশ পাটকল কর্পোরেশনের চেয়ারম্যান বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করে। স্মারকলিপি গ্রহণ করেন কর্পোরেশনের সচিব এ কে এম তারেক।

স্মারকলিপিতে আন্দোলনরত পাটকল শ্রমিকদের ৯ দফা দাবি তুলে ধরে তা অবিলম্বে মেনে নেওয়ার দাবি জানানো হয়। দাবি না মানলে শ্রমজীবী ও শিল্প রক্ষা আন্দোলন দেশব্যাপী ধর্মঘটের ডাক দেবে বলেও জানানো হয়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা