kalerkantho

মঙ্গলবার । ২১ মে ২০১৯। ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৫ রমজান ১৪৪০

সংসদীয় কমিটির ডাকে সাড়া দেননি ওয়াসার এমডি

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৬ মে, ২০১৯ ২১:১০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সংসদীয় কমিটির ডাকে সাড়া দেননি ওয়াসার এমডি

অনুমতি হিসাব সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে ঢাকা ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) তানকিন এ খানকে আমন্ত্রণ জানানো হলেও উপস্থিত হননি তিনি। এনিয়ে তীব্র ক্ষোভ ও অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন কমিটির সদস্যরা। এবিষয়ে বৈঠকে উপস্থিত স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিবের কাছে এমডির অনুপস্থিতির কারণ জানতে চাওয়া হলে তিনি কোন সুদত্তর দিতে পারেননি। পরে কমিটির পক্ষ থেকে পরবর্তী বৈঠকে তার উপস্থিতি নিশ্চিত করার তাগিদ দেওয়া হয়েছে।

কমিটি সূত্র জানায়, ঢাকা ওয়াসার পানির মান ও চলমান প্রকল্পগুলো নিয়ে আলোচনার জন্য ওয়াসার এমডিকে সংসদীয় কমিটির বৈঠকে উপস্থিত থাকার জন্য আমন্ত্রণ জানানো হয়। বৃহস্পতিবার সকালে নির্ধারিত সময়ে কমিটির সভাপতি মো. আব্দুস শহীদের সভাপতিত্বে কমিটির বৈঠক শুরু হলেও তিনি উপস্থিত হননি। অনুপস্থিতির কারণ সম্পর্কে উপস্থিত সচিবের কাছে কমিটির পক্ষ থেকে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে ওনাকে (এমডি) পত্রের মাধ্যমে জানানো হয়। ওভার টেলিফোনেও বিষয়টি অবহিত করা হয়। অনুপস্থিতির কারণ সম্পর্কে তিনি জানেন না। তাকে যথাযথ ভাবে উপস্থিত হওয়ার জন্য বার্তা দিলেও তিনি কেন আসেননি তার প্রকৃত কারণ তিনিই বলতে পারবেন।

সূত্র আরো জানায়, সচিবের বক্তব্যের পর কমিটির সভাপতি আবদুস শহীদ, কমিটির সদস্য ও প্রধান হুইপ নুর-ই-আলম চৌধুরী এবং ব্যারিষ্টার শেখ ফজলে নুর তাপসসহ উপস্থিত কমিটির সদস্যরা ক্ষোভ প্রকাশ করেন। কমিটির পক্ষ থেকে অনুপস্থিতির কারণ জানানোর পাশাপাশি পরবর্তী বৈঠকে তার উপস্থিতি নিশ্চিত করার জন্য বলেন। এছাড়া বৈঠকে জনবহুলপূর্ণ ঢাকাবাসীকে সুপেয় পানি সরবরাহ করার জন্য ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের ন্যায় ঢাকা উত্তর ওয়াসা ও ঢাকা দক্ষিণ ওয়াসা করার সুপারিশ করা হয়।

বৈঠকে উপস্থিত একাধিক সূত্র জানায়, স্থানীয় সরকার বিভাগের আওতাধীন বেশ কিছু প্রকল্পের অগ্রগতিতে অসন্তোষ প্রকাশ করে কমিটি। কমিটি বৈঠকে আলোচনা শেষে এ বিষয়ে আগামী ৩০ জুনের মধ্যে রিপোর্ট প্রদানের জন্য সুপারিশ করা হয়। এছাড়া কমিটির পক্ষ থেকে আগামীতে নতুন কোন প্রকল্প নেওয়ার আগে মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের সমন্বয়ে একটি কমিটি গঠনের তাগিদ দেওয়া হয়।

মন্তব্য