kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২৩ মে ২০১৯। ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৭ রমজান ১৪৪০

রাজধানীতে ৬ হাজার কেজি মেয়াদোত্তীর্ণ খেজুর জব্দ

৬ জনকে ২ বছর করে দণ্ড, ৬৬ লাখ টাকা জরিমানা

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৪ এপ্রিল, ২০১৯ ০১:২৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রাজধানীতে ৬ হাজার কেজি মেয়াদোত্তীর্ণ খেজুর জব্দ

ছবি: কালের কণ্ঠ

রাজধানীর বাদামতলীর খেজুরের আড়তে অভিযান চালিয়েছে র‍্যাব’র ভ্রাম্যমাণ আদালত। অভিযানে মৌসুমি ট্রেডার্স ও মনির এন্টারপ্রাইজ থেকে ৬ হাজার কেজি মেয়াদোত্তীর্ণ ও মানহীন খেজুর জব্দ করা হয়। পরে তা ধ্বংস করা হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে বিএসটিআই ও র‍্যাব-১০ এর সহযোগিতায় অভিযান পরিচালনা করেন র‍্যাব সদর দপ্তরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম।

তিনি জানান, বাদামতলীর মৌসুমি ট্রেডার্স ও মনির এন্টারপ্রাইজ মেয়াদোত্তীর্ণ ও নষ্ট খেজুরের মেয়াদ দুই বছর বাড়িয়ে নতুন প্যাকেটজাত করে বিক্রি করছিল। এ অভিযোগে ওই দুই প্রতিষ্ঠানকে ৬৬ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অপরাধে ওই দুই প্রতিষ্ঠানের ছয় জনকে আটক করা হয়। পরে দোষ স্বীকার করায় প্রত্যেককে দুই বছর করে কারাদন্ড দেওয়া হয়।

সারওয়ার আলম বলেন, ‘গত বছর মৌসুমী ট্রেডার্সে অভিযান চালিয়ে সঠিক মেয়াদের ভাল খেজুর পাওয়া যায়। তখন এ প্রতিষ্ঠানটিকে ধন্যবাদও দেয় র্যাব।’ গতকাল দেখা যায়, দুই খেজুরের আড়তে বিক্রির জন্য বিপুল পরিমাণ পঁচা ও মেয়াদোত্তীর্ণ খেজুর মজুত করা হয়েছে। মানহীন এসব খেজুর প্যাকেটে ভরে নতুন করে মেয়াদের ট্যাগ লাগানো হচ্ছে। তারা নিজেরাই ট্যাগ বানিয়ে নিজেদের মতো করে মেয়াদের তারিখ বসিয়ে বাজারজাত করে আসছিল।

র‍্যাব কর্মকর্তারা জানান, সামনে পবিত্র রমজান মাস। এই মাসে দেশে বিপুল পরিমাণ খেজুরের চাহিদা থাকে। কারণ খেজুর হচ্ছে ইফতারের মূল উপাদানের অংশ। এ সুযোগটা কাজে লাগিয়ে মেয়াদোত্তীর্ণ ও নষ্ট খেজুর বাজারজাত করে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে অসাদু ব্যবসায়ীরা।

মন্তব্য