kalerkantho

শুক্রবার । ২৪ মে ২০১৯। ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৮ রমজান ১৪৪০

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলা

খালেদা জিয়ার আপিল গ্রহণের আবেদনের শুনানি ৩০ এপ্রিল

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৩ এপ্রিল, ২০১৯ ১৭:৩৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



খালেদা জিয়ার আপিল গ্রহণের আবেদনের শুনানি ৩০ এপ্রিল

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় নিম্ন আদালতের দেওয়া ৭ বছর সশ্রম কারাদণ্ডের বিরুদ্ধে সাবেক প্রধানমন্ত্রী বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার করা আপিল গ্রহণ বিষয়ে করা আবেদনের ওপর আগামী ৩০ এপ্রিল শুনানির দিন ধার্য করেছেন হাইকোর্ট। 

বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও বিচারপতি এসএম কুদ্দুস জামানের হাইকোর্ট বেঞ্চ ‌আজ মঙ্গলবার এ দিন ধার্য করেন। খালেদা জিয়ার পক্ষে আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন ও ব্যারিস্টার কায়সার কামাল। এর আগে গতবছর ১৮ নভেম্বর নিজেকে নির্দোষ দাবি করে মামলা থেকে খালাস চেয়ে হাইকোর্টে আপিল করেন খালেদা জিয়া। আপিলের সঙ্গে জামিনের আবেদন করা হয়। 

এ মামলায় নিম্ন আদালত খালেদা জিয়াসহ মামলার চার আসামিকে ১৯৪৭ সালের দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫(২) ধারায় সকল আসামিকে সর্বোচ্চ শাস্তি ৭ বছর করে সশ্রম কারাদণ্ড এবং ১০ লাখ টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে আরো ৬ মাস করে কারাদণ্ড দেয়। মামলার অপর তিন আসামি সাবেক প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক সচিব হারিছ চৌধুরী, হারিছ চৌধুরীর তৎকালীন একান্ত সচিব (বিআইডাব্লিউটিএ’র নৌ নিরাপত্তা ও ট্রাফিক বিভাগের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক) জিয়াউল ইসলাম মুন্না এবং ঢাকা সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকার একান্ত সচিব মনিরুল ইসলাম খান। রায়ে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাষ্টের নামে কাকরাইলে কেনা ৪২ কাটা জমি রাষ্ট্রের অনুকূলে বাজেয়াপ্ত করা হয়। 

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাষ্টের নামে অবৈধভাবে তিন কোটি ১৫ লাখ ৪৩ হাজার টাকা লেনদেনের অভিযোগে খালেদা জিয়াসহ চারজনের বিরুদ্ধে ২০১১ সালের ৮ আগষ্ট তেজগাঁও থানায় মামলা করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। দুদকের উপ-পরিচালক হারুন-অর-রশীদ এ মামলায় তদন্ত শেষে ২০১২ সালের ১৬ জানুয়ারি চারজনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেন। ২০১৪ সালের ১৯ মার্চ আদালত আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করা হয়। 

মন্তব্য