kalerkantho

বুধবার । ২২ মে ২০১৯। ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৬ রমজান ১৪৪০

র‌্যাব এর ভ্রাম্যমাণ আদালত

নকল কসমেটিকস ও ওষুধ তৈরি, সাতজনকে ৩৬ লাখ টাকা জরিমানা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২২ এপ্রিল, ২০১৯ ১৮:৪৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নকল কসমেটিকস ও ওষুধ তৈরি, সাতজনকে ৩৬ লাখ টাকা জরিমানা

অভিযান শেষে গণমাধ্যমকর্মীদের ব্রিফ করছেন র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন ১০ এর উপ-অধিনায়ক মেজর আশরাফুল হক, পিএসসি, জি। ছবি : মিডিয়া সেল, র‌্যাব ১০

জনসন বেবি লোশন ও পাউডার, কুমারিকা তেল, বার্নল ক্রিম, বেটনোভেট ক্রিম, রং ফর্সাকারী ক্রিমসহ দেশি-বিদেশি বিভিন্ন নামি-দামি ব্র্যান্ডের মোড়ক ব্যবহার করে নকল কসমেটিকস ও ওষুধ উৎপাদন, বাজারজাত ও মজুদ করার অপরাধে সাত ব্যক্তিকে ৩৬ লাখ টাকা জরিমানা করেছেন র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন পরিচালিত একটি ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক। সেই সাথে তাদের বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটিালিয়ন ১০ এর উপ-অধিনায়ক মেজর মো. আশরাফুল হক এর নেতৃত্বে এবং র‌্যাব সদর দপ্তরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. সারওয়ার আলম এর পরিচালনায় এই ভ্রাম্যমাণ আদালতে আরো উপস্থিত ছিলেন র‌্যাব ১০ এর স্কোয়াড কমান্ডার সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) মো. শাহীনুর চৌধুরী।

ঢাকার কেরানীগঞ্জ থানাধীন বড়িশুর এলাকায় এই অভিযানটি পরিচালিত হয়। অভিযানে সাত ব্যক্তিকে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা, ৩৬ লাখ টাকা জরিমানা এবং প্রায় ২ কোটি টাকা মূল্যের কসমেটিকস ও ওষুধ জব্দ করা হয়।

দণ্ডিতরা হলেন

১. মো. আলাউদ্দিন (১০,০০,০০০/- টাকা অর্থদণ্ড, ২ বছরের কারাদণ্ড) 
২. মো. সজল (৬,০০,০০০/- টাকা অর্থদণ্ড, ১ বছরের কারাদণ্ড)
৩. মো. তাজুল ইসলাম (৬,০০,০০০/- টাকা অর্থদণ্ড, ৬ মাসের কারাদণ্ড)
৪. মো. শাওন (৬,০০,০০০/- টাকা অর্থদণ্ড, ১ বছরের কারাদণ্ড) 
৫. মো. শুভ (৪,০০,০০০/- টাকা অর্থদণ্ড, ৬ মাস কারাদণ্ড) 
৬. মো. আরিফ হোসেন জনি (৪,০০,০০০/- টাকা অর্থদণ্ড, ৬ মাস কারাদণ্ড) 
৭. মো. সাব্বির (৩ মাস কারাদণ্ড)

মন্তব্য