kalerkantho

সোমবার । ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১১ রবিউস সানি ১৪৪১     

জনশক্তিকে মানবসম্পদে পরিণত করতে কাজ করছে সরকার : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৫ এপ্রিল, ২০১৯ ০৯:১৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জনশক্তিকে মানবসম্পদে পরিণত করতে কাজ করছে সরকার : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ফাইল ফটো

মানবসম্পদকে কাজে লাগাতে পারলে আমরা অচিরেই আমাদের স্বপ্ন, বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠার স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে পারব বলে মন্তব্য করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ. কে. আব্দুল মোমেন। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন বর্তমান সরকার চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের আলোকে দেশের জনশক্তিকে মানবসম্পদে পরিণত করতে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

গতকাল রাজধানীর নর্থ-সাউথ বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে বাংলা বর্ষররণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন আব্দুল মোমেন।

বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে নর্থসাউথ বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ছাত্র-ছাত্রীদের অংশ গ্রহণে মঙ্গল শোভাযাত্রা, যাত্রাপালা, লোকসঙ্গীত, লোকনৃত্য ও মেলাসহ বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

অনুষ্ঠানে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমাদের জনশক্তিকে আগামী বিশ্বের জন্য উপযুক্ত করে গড়ে তুলতে পারলে বিশ্ব আমাদের দিকে তাকিয়ে থাকবে। আমরা কেবল জনসংখ্যায় অষ্টম বৃহত্তম দেশ হবো না, আমরা অথনীতিতে নিজেদের অন্যতম শ্রেষ্ঠ জাতি হিসেবেও সুপ্রতিষ্ঠিত করব।

তিনি আরো বলেন, আগামীতে চতুর্থ শিল্প বিপ্লব আসবে, সেখানে প্রযুক্তির ব্যবহার অনেক বেশী বেড়ে যাবে। সেই নিরিখে আমরা যাতে অন্যতম শ্রেষ্ঠ জাতি হিসেবে টিকে থাকতে পারি এবং জনশক্তিকে সত্যিকারের মানবসম্পদে পরিণত করতে পারি।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল মোমেন বলেন, আমাদের ছেলে-মেয়েরা বিগত দিনের সব গ্লানি ও দুঃখ মুছে ফেলে নতুনের উদ্দীপনায় উদ্দীপ্ত হবে। নবদিনের আনন্দ তাদের প্রেরণা যোগাবে। তারা সারা বিশ্বে প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে নিজেরা সচেষ্ট থাকবে। এক্ষেত্রে ছাত্র-ছাত্রীদের যথোপযুক্ত হিসেবে গড়ে তুলতে সরকার ডিজিটাল প্রযুক্তিতে শিক্ষা প্রদানের ব্যবস্থা করছে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের প্রধান দুটি সম্পদ রয়েছে-পানি সম্পদ ও মানব সম্পদ। এই দুই সম্পদকে কাজে লাগাতে পারলে তা আমাদের জন্য সুফল বয়ে আনতে পারবে। মানবসম্পদকে কাজে লাগাতে পারলে আমরা অচিরেই আমাদের স্বপ্ন, বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠার স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে পারব।

মোমেন বলেন, বাংলাদেশ হবে একটি উন্নত, সমৃদ্ধ, স্থিতিশীল, অসাম্প্রদায়িক দেশ যেখানে ধনী-দরিদ্রের আকাশসম ফারাক থাকবে না, প্রত্যেক নাগরিকের সমান অধিকার এবং সমান সুযোগ নিশ্চিত হবে। অন্ন, বস্ত্র, বাসস্থান, শিক্ষা, স্বাস্থ্য সেবা সবার জন্য নিশ্চিত হবে। আমাদের লক্ষ্যে এখনও পৌঁছাতে না পারলেও আমরা উন্নয়নের যে যাত্রা শুরু করেছি, এ ধারা অব্যাহত থাকলে ২০৪১ সালের মধ্যে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠিত হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা