kalerkantho

মঙ্গলবার । ১২ নভেম্বর ২০১৯। ২৭ কার্তিক ১৪২৬। ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

ঢাকা আন্তর্জাতিক লোকসংগীত উৎসব শুরু ৯ নভেম্বর

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৯ অক্টোবর, ২০১৭ ১৮:৪৪ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ঢাকা আন্তর্জাতিক লোকসংগীত উৎসব শুরু ৯ নভেম্বর

রাজধানীতে তিন দিনব্যাপি ‘ঢাকা আন্তর্জাতিক লোকসংগীত উৎসব ২০১৭’ আগামী ৯ নভেম্বর থেকে শুরু হচ্ছে। বনানীস্থ বাংলাদেশ আর্মি স্টেডিয়ামে ৯ থেকে ১১ নভেম্বর প্রতিদিন সন্ধ্যা ৬টা থেকে রাত দেড়টা পর্যন্ত চলবে এ উৎসব। সান কমিউনিকেশনস্ লি: ও মাছরাঙা টেলিভিশন যৌথভাবে এ উৎসবের আয়োজন করেছে।

আজ রাজধানীর ‘দ্য ওয়েস্টিন ঢাকা’ হোটেলে এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানানো হয়। এতে বক্তব্য রাখেন সান কমিউনিকেশনস্ লিমিটেডের চেয়ারম্যান, স্কয়ার টয়লেট্রিজ, স্কয়ার ফুড অ্যান্ড বেভারেজ ও মাছরাঙা টেলিভিশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক অঞ্জন চৌধুরী, ঢাকা ব্যাংক লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও সৈয়দ মাহবুবুর রহমান, ইস্পাহানী গ্রুপের পরিচালক এমাদ ইস্পাহানী, গ্রিন ডেল্টা ইনস্যুরেন্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও ফারজানা চৌধুরী প্রমুখ।

অঞ্জন চৌধুরী জানান, এবারের উৎসবে বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তান, নেপাল, ইরান, ব্রাজিল, মালী, অস্ট্রেলিয়া, ফ্রান্স ও জাপান থেকে প্রায় ১৪০ জন লোকসংগীত শিল্পী অংশগ্রহণ করছেন।

তিনি বলেন, লোকসংগীতের এই মহোৎসবে এবারের উল্লেখযোগ্য শিল্পীরা হলেন- বাংলাদেশের শাহজাহান মুন্সি, আরিফ দেওয়ান, ফকির শাহাবুদ্দিন, শাহনাজ বেলী, শাহ আলম সরকার, বাউলা, বাউলিয়ানা ও আলেয়া বেগম। ভারত থেকে পাপন, নুরান সিস্টার্স ও বাসুদেব দাস বাউল। মালী’র বিশ্বখ্যাত গ্র্যামি বিজয়ী তিনারিওয়েন ব্যান্ড। পাকিস্তান থেকে মিকাল হাসান ব্যান্ড। নেপাল থেকে কুটুম্বা। তিব্বতের ফোক শিল্পী তেনজিন চো’য়েগাল। ইরান থেকে রাস্তাক। ব্রাজিল থেকে মোরিসিও টিযুমবাসহ আরও অনেকে পরিবেশন করবেন শেকড় সন্ধানী গান।

সৈয়দ মাহবুবুর রহমান বলেন, প্রতিবছরের মতো এবারও দর্শকরা শুধুমাত্র অনলাইন রেজিস্ট্রেশনের মাধ্যমে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে লোকসংগীতের এ মহোৎসব উপভোগ করতে পারবেন।

তিনি বলেন, নিরাপত্তার স্বার্থে মোবাইল ফোনে ওটিপি ভেরিফিকেশনের মাধ্যমে এবারের রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। প্রতিটি মোবাইল নম্বর থেকে একটি করে রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন।

এ জন্য http://dhakainternationalfolkfest.com/ ওয়েবসাইটটিতে গিয়ে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। রেজিস্ট্রেশনের জন্য জাতীয় পরিচয়পত্র, পাসপোর্টের নম্বর বা স্কুল/কলেজের ফটো আইডি কার্ড প্রয়োজন হবে। রেজিস্ট্রেশন সফল হলে পরবর্তী নির্দেশনা অনুযায়ী এন্ট্রিপাস প্রিন্ট করতে হবে। অনুষ্ঠানস্থলে তিনদিনের জন্য তিনটি আলাদা এন্ট্রিপাস প্রদর্শন করতে হবে। ফেসবুকের ‘ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ফোকফেস্ট’ পেইজটিতে পাওয়া যাবে আয়োজনের সকল তথ্য। 

বক্তাগণ আরো বলেন, অনুষ্ঠানটির টেলিভিশন সম্প্রচারের দায়িত্বে থাকবে মাছরাঙা টেলিভিশন। ফেসবুকের ‘ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ফোকফেস্ট’ পেইজটি এবং এর নিজস্ব ইউটিউব চ্যানেলে পুরো অনুষ্ঠানটি লাইভ দেখার সুযোগ থাকবে। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা