kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২২ আগস্ট ২০১৯। ৭ ভাদ্র ১৪২৬। ২০ জিলহজ ১৪৪০

আটক রাসেলের জাওয়াহিরির অডিওবার্তা প্রচারের স্বীকারোক্তি

রেজোয়ান বিশ্বাস   

১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৪ ১৬:০৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আটক রাসেলের জাওয়াহিরির অডিওবার্তা প্রচারের স্বীকারোক্তি

'আমি আমার নিজের ব্লগ ও ফেসবুকের মাধ্যমে জাওয়াহিরির অডিওবার্তা প্রচার করেছি' সাংবাদিকদের সামনে এভাবেই স্বীকারোক্তি দিয়েছেন টাঙ্গাইলের মাঝিপাড়া থেকে আটক রাসেল বিন সাত্তার। আজ দুপুর সাড়ে ৩টার দিকে র‌্যাব সদরদপ্তরে উপন্থিত সাংবাদিকদের সামনে এই স্বীকারোক্তি দেন তিনি। র‌্যাব জানায়, এই অডিওবার্তা ৩০ নভেম্বর প্রথম আপলোড করা হয় দাওয়াই ইল্লাল্লা নামের ব্লগে।
র‌্যাব জানায়, তার ই-মেইল আইডি থেকে আপলোডের লিঙ্ক পাওয়া গেছে। তবে রাসেল সাংবাদিকদের জানান, সে সাইটে ফলো করে রেখেছেন তাই যেকোনো ভিডিও-ফটো আপলোড হলেই তার ই-মেইলে চলে আসবে। রাসেল সাংবাদিকদের সামনে একাধিকবার স্বীকার করেছেন, বাংলাদেশে এই ভিডিওটা তার মাধ্যমেই প্রচার হয়েছে। এই জন্য তিনিই দায়ী। তবে ভিডিওটা দেশের বাইরে থেকে সম্ভবত আপলোড করা হয়েছে বলে তিনি ধারণা করেন।
রাসেল আরও জানান, জিহাদ বিষয়ে তিনি আগ্রহী তাই যেকোনো ইসলামিক বিষয় খুঁজে পেলেই তিনি তা সংগ্রহ করেন। আর এভাবেই তিনি এসবে জড়িয়ে পড়েন। রাসেল একাধিক ফেসবুক গ্রুপের সদস্য। এক সময় ফেসবুকের অনেক পেজ চালাতেন অনেক অ্যাডমিনও পরে তাদের রিমুভ করে তিনি নিজেই সব পেজ চালাতেন। তার মোবাইলে গান ইসলামে হারাম তাই ওয়াজ মাহফিল রাখেন বলে জানান।
র‌্যাব দাবি করেছে, আল-জাওয়াহিরির কথিত অডিওবার্তা ইন্টারনেটে প্রকাশের মূলে রয়েছেন রাসেল। ইসলামী ছাত্রশিবিরের ফেসবুক পেজ বাঁশের কেল্লাসহ বেশ কয়েকটি উগ্রবাদী পেজের একজন অ্যাডমিন তিনি।
উল্লেখ্য, গত ১৫ ফেব্রুয়ারি শনিবার জিহাদোলোজি ডটকম (jihadology.com)  সাইট থেকে প্রচার করা অডিওবার্তায় বাংলাদেশের মুসলমানদের প্রতি ‘ইসলামের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণাকারী’ দের প্রতিরোধের আহ্বান জানিয়ে হুমকি দেওয়া হয়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা