kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ ডিসেম্বর ২০২২ । ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ । ১১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

ইসলামী শিল্পকলা মিলছে অনলাইনে

অনলাইন ডেস্ক   

২ অক্টোবর, ২০২২ ১৬:০৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ইসলামী শিল্পকলা মিলছে অনলাইনে

বিশ্বব্যাপী ইসলামী শিল্পকলার চাহিদা প্রচুর। নিজের সৃজনশীল প্রতিভা কাজে লাগিয়ে কাজ করছেন অনেকে। শিল্পকলার গ্রাহকদের কাছে নিজের কাজ পৌঁছে দিতে ওয়েবসাইট চালু করেছেন তিন তরুণী। লেবানিজ বংশোদ্ভূত আর্মেনিয়ান তরুণী হিলদা ও লিনা কেলাকিয়ান নিজেদের শিল্পকর্ম তুলে ধরতে ‘ইসলামিক আর্ট ডট মি‘ নামে একটি ওয়েবসাইট খুলেন অ্যানথোনি আজুরি।

বিজ্ঞাপন

পবিত্র কোরআনের বিভিন্ন আয়াত শিল্পকর্মের মাধ্যমে তাতে তুলে ধরা হয়।  

আজুরি জানান, হিলদার শিল্পকর্মের চাহিদা বিশ্বের বিভিন্ন দেশে তৈরি হয়েছে। সৌদি আরব, আমিরাতসহ উপসাগরীয় দেশ ও ইউরোপেও তার কাজের গ্রাহক রয়েছে। তাই আমার মনে হলো, তার অনন্য শিল্পকর্মগুলো এখানে প্রকাশ হলে ভালোই হয়। সে গরু ও ছাগলের চামড়ায় চিত্রাঙ্কন করেন। আর লিনা একজন মৃৎশিল্পী।  

৩০ বছরের বেশি সময় ধরে শিল্পকলার কাজ করছেন হিলদা। কোরআন আয়াত, অঙ্কন ও কৌশল ঠিক আছে কিনা তা জানতে একজন ইমামের সঙ্গে আগেই আলাপ করে নেন বলে জানান তিনি। হিলদা বলেন, ‘আমি আরবি অক্ষরগুলোতে সুর খুঁজে পাই। লেখার সময় আমি আরবি ‘কুফি’ লিপি পদ্ধতি অনুসরণ করি না। বরং নিজস্ব রীতিতেই আমি লিখি। তবে আরবি লিপিকলার সব পদ্ধতি আমি জানলেও আমি বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে যোগাযোগ করি। যেন আমার লেখায় ইসলামী রীতির অনুসরণ  থাকে। ’

তিনি বলেন, ‘যখন আমি একটি আয়াত নকল করতে পবিত্র কোরআন খুলি, তখন আমাকে কোনো স্টাইল অনুসরণ করতে হবে। তাই আমি অঙ্কন শুরু করি তখন আমাকে সেসব রীতি অনুসণ অবশ্যই করতে হয় এবং আগে থেকেই এ সম্পর্কে ধারণা থাকতে হয়। একটি পেইন্টিং শেষ করতে তার এক মাস সময় লাগে। অবশ্য বেশি কাজ থাকলে একসঙ্গে কয়েকটি পেইন্টিং করি। ’

গত মাসে চালু হওয়া ওয়েবসাইটের মাধ্যমে তার শিল্পকর্মগুলো বিশ্বের বিভিন্ন দেশে পাঠানো হয়। ইতিমধ্যে  যুক্তরাষ্ট্রে, স্পেন, ভেনিস, ফ্রান্স, চীনসহ বিভিন্ন দেশে তাঁর অনেক কাজের প্রদর্শনী হয়েছে। লেনা একজন মাল্টিডিসিপ্লিনারি ভিজ্যুয়াল আর্টিস্ট। তিনি ১৩টি দেশে ১৭টি একক প্রদর্শনীর আয়োজন করেছেন এবং ৬২ দেশের ২০২টি যৌথ প্রদর্শনীতে অংশ নেন। এছাড়াও লন্ডন ও ইতালিসহ বিশ্বের ৩২ প্রতিষ্ঠানে তার কাজ প্রদর্শিত হচ্ছে।  

সূত্র : আরব নিউজ



সাতদিনের সেরা