kalerkantho

মঙ্গলবার । ৪ মাঘ ১৪২৮। ১৮ জানুয়ারি ২০২২। ১৪ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

ইরাকে ১৩ শ বছর আগের মাটির তৈরি প্রাচীন মসজিদের সন্ধান

অনলাইন ডেস্ক   

২৮ নভেম্বর, ২০২১ ১৫:০৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ইরাকে ১৩ শ বছর আগের মাটির তৈরি প্রাচীন মসজিদের সন্ধান

ইরাকে ইসলামের প্রথম শতাব্দীর মাটির একটি প্রাচীন মসজিদের সন্ধান পেয়েছেন গবেষকরা। ১৩০০ বছর আগের মসজিদটি ব্রিটিশ জাদুঘর বিভাগ ও ইরাকের প্রত্নতাত্ত্বিকদের যৌথ উদ্যোগে আবিষ্কৃত হয়। ইরাকের দক্ষিণাঞ্চলের দিকার প্রদেশের আল রাফাই প্রত্নতাত্ত্বিক শহরের সন্ধান পাওয়া মসজিদটি ৬০ হিজরিতে উমাইয়া শাসনকালের বলে মনে করছেন গবেষকরা।

আলজাজিরা এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ৬৭৯ সালে উমাইয়া শাসনামলের মসজিদটি ৮ মিটার (২৬ ফুট) চওড়া ও পাঁচ মিটার লম্বা। মসজিদের মধ্যখানে ইমামের জন্য ছোট্ট স্থানও আছে। তা ছাড়া তাতে ২৫ জন মুসল্লি একসঙ্গে নামাজ পড়তে পারবেন।

গভর্নরেটের তদন্ত ও খনন বিভাগের প্রধান আলী শালগাম প্রাচীন এ মসজিদের অনুসন্ধানকে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ও মহা আবিষ্কার বলে অভিহিত করেছেন। কারণ ইসলামের প্রথম যুগে মসজিদটি হয়েছে। আরেকটি কারণ হলো, মসজিদটি পুরোপুরি মাটি দিয়ে তৈরি হয়েছিল।

ইরাকের বার্তা সংস্থাকে শালগাম আরো বলেন, ‘ইসলামের প্রাথমিক সময়কে প্রকাশের জন্য আমরা খুবই কম তথ্য পেয়েছি। দীর্ঘ ১৩ শ বছর আগে মাটির তৈরি মসজিদে পানি, বৃষ্টি ও বাতাসের কারণে অনেক ক্ষয় হয়। ফলে এর খুব সামান্য অংশই বাকি ছিল। 

দিকার প্রদেশের মতো প্রাচীন প্রত্নতত্ত্বসমৃদ্ধ আরেকটি শহর উর। এটি প্রাচীন মেসোপটেমিয়ার একটি সুমেরীয় শহর ছিল। গত বছর ঐতিহাসিক স্থাপনার গুরুত্ব বিবেচনায় ইরাক সফরকালে পোপ ফ্রান্সিসও উর শহরে আসেন। 

সম্প্রতি প্রত্নতাত্ত্বিক সমৃদ্ধ এ শহরগুলো বিদেশি পর্যটকদের আকৃষ্ট করছে। ফরাসি প্রত্নতাত্ত্বিক খননকারী দল সম্প্রতি এ প্রদেশের তুলুল আল সিনকারায় লারসার প্রত্নতাত্ত্বিক স্থানে রাজা সিন এডনামের প্রাসাদ আবিষ্কার করেছে। এ বছরের শুরুতে রাশিয়া ও ইরাকের প্রত্নতাত্ত্বিক দল যৌথভাবে চার হাজার বছরের পুরনো প্রাচীন বসতি আবিষ্কার করেছে।

তদুপরি যুগ যুগ ধরে চলে আসা দ্বন্দ্ব-সংঘাত ও আর্থিক অব্যবস্থাপনার কারণে তেলসমৃদ্ধ দেশটি প্রত্নতত্ত্বের প্রতি সুস্পষ্টভাবে তেমন আগ্রহী নয় বলেই মনে করছেন অনেকে।

সূত্র : আলজাজিরা।



সাতদিনের সেরা