kalerkantho

শনিবার । ৩১ আশ্বিন ১৪২৮। ১৬ অক্টোবর ২০২১। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

ব্রেইল পদ্ধতিতে কোরআন মুখস্থ করলেন দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী তরুণী

অনলাইন ডেস্ক   

২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ১৫:৪৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ব্রেইল পদ্ধতিতে কোরআন মুখস্থ করলেন দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী তরুণী

পবিত্র কোরআন মুখস্ত করা অত্যন্ত সম্মানিত কাজ। মহান আল্লাহর কাছে তাদের রয়েছে বিশেষ মর্যাদা। সাধারণত সুস্থ-সবল শিশু-কিশোররা শৈশবে কোরআন মুখস্থ শুরু করে। তবে শুধুমাত্র সুস্থ সবল না হয়েও পবিত্র কোরআন হিফজের ঐতিহ্য রয়েছে। ইসলামের সূচনাকাল থেকেই দৃষ্টিপ্রতিবন্ধীদের কোরআন মুখস্থের ইতিহাস রয়েছে। 

সম্প্রতি আল জাজিরা মুবাশির চ্যানেলের একটি অনুষ্ঠানে কোরআন হিফজের গল্প শোনান লেবাননের একজন দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী তরুণী। নিজের সব প্রতিবন্ধকতা ও সীমাবদ্ধতাকে পেছনে ফেলে ব্রেইল পদ্ধতিতে কোরআন হিফজ করেন সাজেদা বেলাল আবদুর রহমান নামের এ তরুণী। 

সাজেদা জানান যে, তিনি প্রতিদিন সকালে কোরআনের নির্দিষ্ট পরিমাণ অংশ হিফজ করতেন। এরপর বিকালবেলা পরিবারের সঙ্গে তা পুনরায় পড়তেন। এভাবে দীর্ঘ দিনের প্রচেষ্টায় কোরআন মুখস্থ সম্পন্ন করেন। 

সাজেদার বাবা সন্তানের কোরআন হিফজ শেষ হওয়ায় আনন্দ ও উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন। তিনি সব বাবা-মায়কে সন্তানদের ব্যাপারে যত্নবান হওয়ার আহ্বান জানান। সন্তানরা যেন  মোবাইল, ইন্টারনেট ও টিভির মধ্যে পুরো অবসর সময় না কাটিয়ে কোরআন হিফজে মনোযোগী এ ব্যাপারে তাদেরকে উদ্বুদ্ধ করতে বলেন। 

ব্রেইল হল অন্ধ ও দৃষ্টি প্রতিবন্ধীদের জন্য লেখা ও পড়ার বিশেষ পদ্ধতি। বিশেষ কাগজের ওপর ছয়টি বিন্দুকে ফুটিয়ে তুলে লেখা পাঠ করা হয়। দৃষ্টিহীন ব্যক্তিরা এই উন্নীত বা উত্তল বিন্দুগুলোর ওপর আঙ্গুল বুলিয়ে ছয়টি বিন্দুর নকশা অনুযায়ী কোনটি কোন অক্ষর তা অনুধাবন করতে সক্ষম হয় এবং লেখার অর্থ বুঝতে পারে। 

সূত্র : আল জাজিরা



সাতদিনের সেরা