kalerkantho

শনিবার । ৩১ আশ্বিন ১৪২৮। ১৬ অক্টোবর ২০২১। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

যে কারণে মসজিদ সর্বোত্তম স্থান

মাওলানা সাখাওয়াত উল্লাহ   

২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ১৫:৩২ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



যে কারণে মসজিদ সর্বোত্তম স্থান

মসজিদ পৃথিবীর পবিত্রতম স্থান। ইসলামে মসজিদের বিশেষ মর্যাদা ও গুরুত্ব আছে। নিম্নে ইসলামে মসজিদের অবস্থান নিয়ে আলোচনা করা হলো—

মসজিদ আল্লাহর ঘর : পৃথিবীর সব মসজিদকে আল্লাহ নিজের ঘর বলে উল্লেখ করেছেন। এ জন্য মসজিদগুলোকে ‘বায়তুল্লাহ’ বা ‘আল্লাহর ঘর’ বলা হয়। ইবরাহিম (আ.) তাঁর স্ত্রী হাজেরা ও তাঁর সন্তান ইসমাঈল (আ.)-কে কাবাঘরের পাশে রেখে এই বলে আল্লাহর কাছে দোয়া করেছিলেন, ‘হে আমাদের রব, আমি আমার সন্তানদের একাংশকে তোমার এ পবিত্র (কাবা) গৃহের সন্নিকটে চাষাবাদহীন উপত্যকায় রেখে যাচ্ছি। হে আমাদের পালনকর্তা, যেন তারা সালাত কায়েম করে। অতএব কিছু মানুষের অন্তরকে তুমি তাদের প্রতি আকৃষ্ট করে দাও এবং তাদের ফল-ফলাদি দ্বারা রিজিক দান করো, যাতে তারা কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে।’ (সুরা ইবরাহিম, আয়াত : ৩৭)

মসজিদের মালিক আল্লাহ : পৃথিবীর সব কিছুর একচ্ছত্র মালিক হচ্ছেন আল্লাহ। এর পরও বিশেষভাবে মসজিদের কথা উল্লেখ করা হয়েছে যে মসজিদের মালিকানা আল্লাহর। আল্লাহ তাআলা বলেন, ‘অতএব তারা যেন ইবাদত করে এই গৃহের মালিকের।’ (সুরা কুরাইশ, আয়াত : ৩)

মসজিদ পৃথিবীর সবচেয়ে উত্তম জায়গা : পৃথিবীর মধ্যে আল্লাহর কাছে সবচেয়ে পছন্দের জায়গা হলো মসজিদ। আবু হুরায়রা (রা.) থেকে বর্ণিত, রাসুলুল্লাহ (সা.) বলেন, ‘আল্লাহর কাছে সবচেয়ে প্রিয় জায়গা হলো মসজিদ, আর সবচেয়ে খারাপ জায়গা হলো বাজার।’ (মুসলিম, হাদিস : ৬৭১)

সালাত আদায়ের স্থান : ঈমানের পর বান্দার ওপর ফরজ হলো সালাত আদায় করা। কিয়ামতের দিন সর্বপ্রথম সালাতের হিসাব নেওয়া হবে। আর এই সালাত আদায়ের অন্যতম স্থান হলো মসজিদ। আবু হুরায়রা (রা.) থেকে বর্ণিত, রাসুল (সা.) বলেছেন, ‘ঘরে অথবা বাজারে সালাত আদায় করার চেয়ে মসজিদে জামাতে সালাত আদায় করার সওয়াব ২৫ গুণ বেশি। কারণ কোনো ব্যক্তি যখন ভালো করে অজু করে শুধু সালাত আদায় করার জন্য মসজিদে গমন করে, তার প্রতিটি কদমের বিনিময়ে একেকটি মর্যাদা বৃদ্ধি করা হয় এবং একটি করে গুনাহ মাফ করা হয়। অতঃপর যখন সালাত আদায় শেষ করে জায়নামাজে বসে থাকে, ফেরেশতারা ওই ব্যক্তির জন্য অনবরত এই দোয়া করতে থাকে যে হে আল্লাহ, তুমি তাকে মাফ করে দাও। হে আল্লাহ, তুমি তার ওপর রহমত বর্ষণ করো। আর তোমাদের কেউ সালাতের জন্য অপেক্ষা করলে তার ওই সময় সালাতের মধ্যে গণ্য হবে।’ (মুসলিম, হাদিস : ৬৪৭)

ইবনে ওমর (রা.) থেকে বর্ণিত, রাসুলুল্লাহ (সা.) বলেছেন, ‘একা একা সালাত আদায় করার চেয়ে জামাতে সালাত আদায় করা ২৭ গুণ বেশি সওয়াবের।’ (বুখারি, হাদিস : ৬৪৫)

ইতিকাফের স্থান : মসজিদ ছাড়া অন্যত্র ইতিকাফ করা বৈধ নয়। মহান আল্লাহ বলেন, ‘আর তোমরা স্ত্রী-গমন কোরো না—যখন তোমরা মসজিদে ইতিকাফ অবস্থায় থাকো।’ (সুরা বাকারা, আয়াত : ১৮৭)

মসজিদ আল্লাহভীরুদের ঘর : আবু দারদা (রা.) থেকে বর্ণিত, রাসুলুল্লাহ (সা.) বলেছেন, ‘মসজিদ হলো প্রত্যেক আল্লাহভীরুর ঘর।’ (সহিহ আত-তারগিব, হাদিস : ৩৩০)



সাতদিনের সেরা