kalerkantho

শুক্রবার । ২ আশ্বিন ১৪২৮। ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১। ৯ সফর ১৪৪৩

টিকা নিলে ১২ বছর বয়সীরা ওমরাহ পালনের সুযোগ পাবে

অনলাইন ডেস্ক   

১২ আগস্ট, ২০২১ ১৫:৪৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



টিকা নিলে ১২ বছর বয়সীরা ওমরাহ পালনের সুযোগ পাবে

করোনা টিকার দুই ডোজ নিলে ১২ বছর বয়সী শিশুরাও ওমরাহ পালন করতে পারবে। ১২-১৮ বছর বয়সী সৌদির শিশুরা ওমরাহ পালনের সুযোগ পাবে বলে জানিয়েছে দেশটির হজ ও ওমরাহ বিষয়ক মন্ত্রণালয়। খবর আরব নিউজের। 

খবর থেকে জানা যায়, এই বয়সসীমার প্রায় ১৩ হাজার সৌদি শিশু এর মধ্যে ওমরাহ পালন ও মসজিদুল হারামে নামাজ আদায়ের অনুমোদন পেয়েছে। এ ছাড়াও তারা মসজিদে নববিতে নাামাজ আদায় ও রওজা শরিফ জিয়ারতের সুযোগ পাবে।

হজ ও ওমরাহ বিষয়ক উপমন্ত্রী ড. আবদুল ফাত্তাহ বিন সুলেমান মাশাত জানান, 'ইতামারনা' ও 'তাওয়াককালনা' অ্যাপের সাহায্যে ওমরাহযাত্রীদের আবেদন প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবে। মুসল্লিদের সুস্বাস্থ্য ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সব ধরনের স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ মেনেই ওমরাহ কার্যক্রমের ব্যবস্থা করা হচ্ছে। 

খবরে আরো জানা যায়, গত ১০ আগস্ট থেকে বিদেশি ওমরাযাত্রীদের আবেদন শুরু হয় পবিত্র মসজিদুল হারামে প্রতিদিন ৬০ হাজারের বেশি মুসল্লির ওমরাহ পালনের ব্যবস্থা করা হয়। ফলে প্রতিমাসে ২০ লাখ মুসল্লি ওমরাহ পালন করবেন। এ সংখ্যা ধীরে ধীরে আরো বাড়ানো হবে বলে জানা যায়। 

স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের ওমরাহযাত্রীরা আবেদনের মাধ্যমে ওমরাহ পালন, নামাজ আদায় ও জিয়ারতের সুযোগ পাবেন। ওমরাহ পালনে আগ্রহীদের বাধ্যতামূলকভাবে সৌদি সরকার অনুমোদিত করোনা টিকার কোনো একটির উভয় ডোজ গ্রহণ করতে হবে। টিকাগুলো হলো, এক. ফাইজার অ্যান্ড বায়োএনটেক। দুই. মডার্না। তিন. অ্যাস্ট্রাজেনেকা। চার. জনসন অ্যান্ড জনসন।

এদিকে করোনা সংক্রমণের হার বেড়ে যাওয়ায় বিশ্বের অনেক দেশে থেকে যাতায়াত বন্ধ রেখেছে সৌদি। দেশগুলো হলো : ভারত, পাকিস্তান, ইন্দোনেশিয়া, মিসর, তুরস্ক, আর্জেন্টিনা, ব্রাজিল, দক্ষিণ আফ্রিকা, আরব আমিরাত, ইথিওপিয়া, ভিয়েতনাম, আফগানিস্তান ও লেবানন।

করোনা সংক্রমণ রোধে ২০২০ সালের মার্চ থেকে সৌদির বাইরের দেশের নাগরিকরা ওমরাহ পালন করতে পারেননি। এরপর অক্টোবর মাস থেকে কেবল সৌদিতে অবস্থানরত সীমিত সংখ্যক মুসল্লি স্বাস্থ্যবিধি মেনে ওমরাহ পালন করেন এবং মক্কা মদিনার পবিত্র দুই মসজিদে নামাজ আদায় করেন। 

করোনাকালে স্বাস্থ্যবিধি মেনে দুটি হজ অনুষ্ঠিত হয়েছে। ২০২০ সালে সৌদিতে অবস্থানরত মাত্র ১০ হাজার মুসল্লি হজ পালন করেন। এ বছর প্রায় ৬০ হাজার মুসল্লি হজ পালন করেন।সূত্র : আরব নিউজ



সাতদিনের সেরা