kalerkantho

বুধবার । ১৩ শ্রাবণ ১৪২৮। ২৮ জুলাই ২০২১। ১৭ জিলহজ ১৪৪২

কাবার নতুন গিলাফ তৈরিতে অংশ নিলেন যে আলেম

অনলাইন ডেস্ক   

২৩ জুন, ২০২১ ১৪:০৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কাবার নতুন গিলাফ তৈরিতে অংশ নিলেন যে আলেম

পবিত্র কাবা ঘরের নতুন গিলাফ (কিসওয়াহ) তৈরিতে অংশগ্রহণ করেছেন অল পাকিস্তান উলামা কাউন্সিলের সভাপতি শায়খ হাফিজ মুহাম্মদ তাহির আশরাফি। মঙ্গলবার (২২ জুন) তাহির আশরাফির নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধিদল কাবার গিলাফ উৎপাদন প্রতিষ্ঠান পরিদর্শনকালে তিনি গিলাফের শেষ সেলাইয়ে অংশগ্রহণ করেন।

হাফিজ তাহির আশরাফি গত বছর থেকে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের ধর্মীয় সম্প্রীতি ও মধ্যপ্রাচ্যবিষয়ক বিশেষ উপদেষ্টা হিসেবে আছেন। এছাড়াও তিনি অল পাকিস্তান উলামা কাউন্সিলের সর্বোচ্চ পরিষদের সদস্য হিসেবে সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন। 

সৌদির কিং আবদুল আজিজ কমপ্লেক্স ফর ম্যানুফেকচারিং হলি কাবাহ কিসওয়ার পরিচালক অধ্যাপক জায়েদ আল লিহয়ানি ও হারামাইন আর্কিটেকচার এক্সিবিশনের কর্মকর্তা অধ্যাপক আবদুল আজিজ আল আমর পাকিস্তানের প্রতিনিধিদলকে সংবর্ধনা প্রদান করেন। 

প্রতিবছর জিলহজ মাসের ৯ তারিখ আরাফা প্রাঙ্গণে হাজিদের অবস্থানকালে পবিত্র কাবা ঘরের গিলাফ পরিবর্তন করা হয়। সেই অনুযায়ী আগামী ১৯ বা ২০ জুলাই পবিত্র কাবার গিলাফ পরিবর্তন করা হবে।

হাদিসের বর্ণনামতে, নবম হিজরিতে রাসুল (সা.) মক্কা বিজয় করে হজ পালনকালে আরাফার দিন (৯ জিলহজ) সাদা রঙের ইয়ামেনি চাদর দিয়ে পবিত্র কাবা ঘরের গিলাফ পরিবর্তন করেন। এরপর থেকে প্রতিবছর এ দিন কাবার গিলাফ পরিবর্তন করা হয়।

ইতিহাস থেকে জানা যায়, মহানবী (সা.)-এর সময় কাবার গিলাফ সাদা ও লাল রঙের ডোরাকাটা ইয়ামেনি কাপড় দ্বারা পরিবর্তন করা হয়েছিল। অতঃপর আবু বকর, উমর, উসমান (রা.)-এর সময়ে তা সাদা কাপড় দ্বারা আবৃত করা হয়। ইবনে জুবাইর (রা.)-এর সময় লাল ব্রকেড কাপড় দিয়ে আবৃত করা হয়।

আব্বাসি যুগে কখনও সাদা কখনও লাল কাপড় দ্বারা আবৃত করা হতো। সেলজুকি শাসনামলে তা হলুদ কাপড় দিয়েও আবৃত করা হয়। আব্বাসি খলিফা নাসির তা কালো কাপড় দ্বারা আবৃত করেন। এরপর থেকে কালো রঙের কাপড় ব্যবহৃত হয়। বর্তমানে গিলাফটি তৈরিতে ৬৭০ কিলোগ্রাম কালো বর্ণের কাঁচা রেশম, ১২০ কিলোগ্রাম স্বর্ণ ও এক শ কিলোগ্রাম রূপার তার ব্যবহার করা হয়।



সাতদিনের সেরা