kalerkantho

মঙ্গলবার । ৭ বৈশাখ ১৪২৮। ২০ এপ্রিল ২০২১। ৭ রমজান ১৪৪২

জমজম কূপের প্রকৌশলী মারা গেছেন

অনলাইন ডেস্ক   

৩ মার্চ, ২০২১ ১৯:৩৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জমজম কূপের প্রকৌশলী মারা গেছেন

প্রকৌশলী ইয়াহইয়া হামজা কোশাক।

পবিত্র মক্কা নগরীর জমজম কূপের প্রকৌশলী ইয়াহইয়া হামজা কোশাক মারা গেছেন। গত সোমবার (১ মার্চ) রাতে ৮০ বছর বয়সে তিনি মারা যান। জমজম কূপের পানি নিয়ে আধুনিক গবেষণার জন্য তিনি পরিচিত ছিলেন। তাঁর মৃত্যুতে সৌদি সরকারের পক্ষ থেকে গভীর শোক প্রকাশ করা হয়। খবর আরব নিউজের। 

১৯৭৯ সালে বাদশাহ খালেদের সময় জমজম কূপের বৃহত্তর পরিষ্কার অভিযানের প্রধান হিসেবে কোশাক কূপের ভেতরে প্রবেশ করেন। এ সময় তিনি পানির উৎস ও প্রত্নতত্ত্ব নিয়ে বিভিন্ন অনুসন্ধান চালান। জমজম কূপের ইতিহাসে এটি ছিল সবচেয়ে বড় পরিষ্কার অভিযান।

হামজা কোশাক ১৯৪১ সালে পবিত্র মক্কা নগরীতে জন্মগ্রহণ করেন। 'ফাদার অব ইঞ্জিনিয়ারস' নামে অনেকের কাছে পরিচিত ছিলেন। উচ্চমাধ্যমিক শেষ করে কোশাক মিসরের আইনে শামস বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রকৌশলবিজ্ঞানে স্নাতক শুরু করেন এবং রিয়াদ বিশ্ববিদ্যালয়ে তা সম্পন্ন করেন। অতঃপর আমেরিকার ওয়াশিংটন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর ও পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেন। 

প্রকৌশলী ইয়াহইয়া হামজা কোশাক

মক্কার প্রযুক্তি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ে বিভিন্ন পদে দীর্ঘদিন দায়িত্ব পালন করেন কোশাক। এ সময় জমজম পরিষ্কার অভিযানে প্রধান হিসেবে পানির উৎস নিয়ে গবেষণা করেন তিনি। প্রত্যক্ষ অনুসন্ধান থেকে তিনি রচনা করেন জমজম কূপের বিষয় একটি গ্রন্থ। ‘জমজম : দ্য হলি ওয়াটার’ নামের বইটিতে পানির বৈজ্ঞানিক ও প্রত্নতাত্ত্বিক দিক নিয়ে আলোকপাত করেন। 

কোশাক বইটিতে বলেন, 'পর্যবেক্ষণ করে দেখা যায়, জমজম কূপের প্রধানত দুটি উৎস আছে। একটি পবিত্র কাবার দিকে, অপরটি আজয়া স্থানের দিকে। ঐতিহাসিকদের বর্ণনামতে তৃতীয় উৎস হিসেবে জাবাল আবু কুবাইস ও সাফা পর্বতের কথা বর্ণনা করা হয়। তবে আমি এর পরিবর্তে অনেক পাথরের মধ্যে ১২টি ছোট গর্তের মতো দেখতে পাই।’

সূত্র : আরব নিউজ

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা