kalerkantho

মঙ্গলবার। ৫ মাঘ ১৪২৭। ১৯ জানুয়ারি ২০২১। ৫ জমাদিউস সানি ১৪৪২

শিগগির কাতার সংকট নিরসনের প্রত্যাশা সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রীর

অনলাইন ডেস্ক   

৫ ডিসেম্বর, ২০২০ ১৩:২৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শিগগির কাতার সংকট নিরসনের প্রত্যাশা সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রীর

সৌদি আরবের পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রিন্স ফয়সাল বিন ফারহান

শিগগির কাতারের আরোপিত তিন বছরের অবরোধ প্রত্যাহারে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী। গতকাল শুক্রবার (৪ নভেম্বর) ইতালির বার্ষিক ভূমধ্যসাগরীয় সংলাপে উপসাগরীয় দেশের দ্বন্দ্ব নিরসনের কথা বলেন সৌদি আরবের পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রিন্স ফয়সাল বিন ফারহান।

প্রিন্স ফয়সাল বলেন, ‘গত কয়েক দিনে আমরা উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি সম্পন্ন করেছি। আমাদের আশা, এই অগ্রগতির ফলে আমরা চূড়ান্ত চুক্তিতে পৌঁছতে পারব। আমি একথাও বলতে পারি যে আমরা সব বিরোধী দেশের সঙ্গে একটি চূড়ান্ত চুক্তির দ্বারপ্রান্তে আছি। সবার কাছে সন্তোষজনক অবস্থানে থাকতে আমরা একটি চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে আসার চেষ্টা করছি।’

প্রিন্স ফয়সালের বক্তব্যের আগে উপসাগরীয় সংকট সমাধানে গঠনমূলক ও ফলপ্রসু অগ্রগতির কথা জানায় কুয়েতের শীর্ষ কূটনীতিবিদ। কুয়েত টিভিকে দেওয়া এক বক্তব্যে পররাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ আহমদ নাসের আল সাবাহ বলেন, ‘সম্প্রতি বেশ কয়েক বার ফলপ্রসু আলোচনা হয়েছে। সব পক্ষ চূড়ান্ত চুক্তিতে পৌঁছতে নিজেদের আগ্রহের কথা জানিয়েছে।’

এ সময় হোয়াইট হাউজের জ্যেষ্ঠ উপদেষ্টা ও ট্রাম্প জামাতা জ্যারেড কুশনারের সাম্প্রতিক প্রচেষ্টার ভূয়সী প্রশংসা করে তাঁর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান কুয়েতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আল সাবাহ।

এদিকে কাতারের আরোপিত উপসাগরীয় চার দেশের অবরোধ প্রত্যাহারে মধ্যস্থতা পালন করায় কুয়েতের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন কাতারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মুহাম্মাদ বিন আবদুল রহমান আল থানি।

এক টুইট বার্তায় আল থানি বলেন, উপসাগরীয় সংকট নিরসনে কুয়েতের ভূমিকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কুয়েতের মধ্যস্থতা ও যুক্তরাষ্ট্রের প্রচেষ্টার জন্য আমরা সবাইকে কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি।’

২০১৭ সালের ৫ জুন ‘সন্ত্রাসে সহযোগিতা’র অভিযোগে কাতারের বিরুদ্ধে অবরোধ আরোপ করে উপসাগরীয় চার দেশ। অভিযোগ অস্বীকারে পরও কাতারের সঙ্গে কূটনীতি, বাণিজ্য ও পর্যটন ভিত্তিক সম্পর্ক ছিন্ন করে সৌদি আরব, সংযুতক্ত আরব আমিরাত, বাহরাইন ও মিসর।

সূত্র : রয়টার্স

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা