kalerkantho

শুক্রবার । ৮ মাঘ ১৪২৭। ২২ জানুয়ারি ২০২১। ৮ জমাদিউস সানি ১৪৪২

তীব্র প্রতিবাদের মধ্যে পম্পেওর পশ্চিম তীর সফর

অনলাইন ডেস্ক   

২০ নভেম্বর, ২০২০ ১২:০৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



তীব্র প্রতিবাদের মধ্যে পম্পেওর পশ্চিম তীর সফর

তীব্র প্রতিবাদের পরও ইসরায়েলের দখলকৃত ফিলিস্তিনের পশ্চিম তীর সফর করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও। এছাড়াও ইসরায়েলের দখলকৃত ভূখণ্ডে তৈরি করা পণ্যকে ইসরায়েলের তৈরি পণ্য বলে গণ্য করা হবে জানান পম্পেও। 

এ সফরের মাধ্যমে অবৈধ বসতিতে ইসরায়েলের নিয়ন্ত্রণ আরো জোরদারে সহায়তা করার অভিযোগ করা হয় ফিলিস্তিনিদের পক্ষ থেকে। ইসরায়েল কর্তৃক পশ্চিম তীর দখলের পর এবারই প্রথম যুক্তরাষ্ট্রের কোনো শীর্ষ কর্মকর্তার সফর করলেন।

গতকাল বৃহস্পতিবার (১৯ নভেম্বর) ইসরায়েলের দখলকৃত পশ্চিম তীরের পাসাগোট ইহুদি বসতি ও গোলান উপত্যাকা পরিদর্শন করেন পম্পেও। এ সময় ফিলিস্তিনিদের পরিচালিত ‘বয়কট, বিভক্তি ও নিষেধাজ্ঞা আরোপ’ (বিডিএস) ক্যাম্পেইনকে ইহুদিবিরোধী বলে উল্লেখ করেন তিনি।

ইসরায়েলকে আন্তর্জাতিক আইন মানতে বাধ্য করে ফিলিস্তিন ভূখণ্ড থেকে ইসরায়েলের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ, ফিলিসিস্তিনিদের অধিকার প্রতিষ্ঠা ও ফিলিস্তিনি শরণার্থীদের প্রত্যাবর্তন নিশ্চিত করতে ‘বিডিএস’ প্রচারণা শুরু করা হয়।

ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনয়ামিন নেতানিয়াহুর সঙ্গে আলাপকালে পম্পেও বলেন, ‘বিডিএস’-কে ইহুদিবিরোধী হিসেবে সাব্যস্ত করার পরিকল্পনা করেছে যুক্তরাষ্ট্র এবং তা পর্যবেক্ষণে বিশেষজ্ঞ দল গঠন করবে। তাছাড়া ইহুদিবাদ বিরোধীদের বিডিএস-এর সহযোগী হিসেবে সাব্যস্ত করা হবে।

পম্পেও বলেন, ‘আমরা শিগগির কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণ করব যাতে বিডিএস-এর ঘৃণা প্রসার ও যুক্তরাষ্ট্রের সরকারের সমর্থন প্রত্যাহারে কাজ করা সংগঠনগুলো চিহ্নিত হয়।’

বৃহস্পতিবার সকালে ইসরায়েল প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করে পম্পেও পশ্চিম তীরের ইহুদি বসতি দেখতে ওখানে সফর করেন। জাতিসংঘের আন্তর্জাতিক আইন মতে পশ্চিম তীরের বসতি স্থাপন পুরোপুরি বেআইনি। তাছাড়া যুক্তরাষ্ট্রের আগের পররাষ্ট্র নীতি এটিকে অবৈধ হিসেবে গণ্য করেছে।

ইসরায়েলের অবৈধ বসতিতে সফর করায় পম্পেও-এর নিন্দা জানিয়েছেন ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসের মুখপাত্র নাবিল আবু রুদাইনাহ। এ সফরকে ‘আন্তর্জাতিক আইনে গৃহীত সিদ্ধান্তের প্রতি প্রকাশ্যে চ্যালেঞ্জ’ বলে আখ্যায়িত করেন।

সূত্র : আল জাজিরা

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা