kalerkantho

রবিবার । ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ২৯ নভেম্বর ২০২০। ১৩ রবিউস সানি ১৪৪২

মহানবীর অবমাননায় মিসরে খ্রিস্টান শিক্ষার্থীদের অভিনব প্রতিবাদ

অনলাইন ডেস্ক   

২৯ অক্টোবর, ২০২০ ১২:২৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মহানবীর অবমাননায় মিসরে খ্রিস্টান শিক্ষার্থীদের অভিনব প্রতিবাদ

‘ইল্লা রাসুলুল্লাহ’-এর আকৃতিতে দাঁড়িয়ে অভিনব পন্থায় মিসরীয় মুসলিম ও খ্রিস্টান শিক্ষার্থীদের প্রতিবাদ

মহানবী (সা.)-এর অবমাননার নিন্দায় স্কুলের খেলার মাঠে ‘ইল্লা রাসুলুল্লাহ’-এর আকৃতিতে দাঁড়িয়ে অভিনব পন্থায় প্রতিবাদ জানান মিসরীয় মুসলিম ও খিস্টান শিক্ষার্থীরা।

মহানবী মুহাম্মাদ (সা.)-এর অবমাননায় ফরাসি প্রেসিডেন্ট ম্যাখোঁর বক্তব্যের প্রতিবাদে মুসলিমদের পাশাপাশি আরবের খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীরাও অংশগ্রহণ করেন। 

গত মঙ্গলবার (২৭ অক্টোবর) আলেকজান্দ্রিয়ার একটি স্কুলের খেলার মাঠে মুসলিম ও খ্রিস্টানদের দাঁড়ানোর চিত্রটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বেশ সাড়া জাগায়।

মুহাম্মাদ রাসুল (সা.)-এর সম্মাননায় আরবিতে ‘ইল্লা রাসুল্লাহ’ বাক্যটি মুসলিম ও খ্রিস্টান শিক্ষার্থীরা দাঁড়িয়ে অত্যন্ত নিপুনভাবে তৈরি করে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে চিত্রটি অসংখ্য বার শেয়ার হয়। অনেক খ্রিস্টান হ্যাশট্যাগ দিয়ে লিখেন, ‘আমি খ্রিস্টান, আমি ইসলাম অবমাননার বিরুদ্ধে।’

মুসলিমদের নবী মুহাম্মাদ (সা.)-এর সম্মান রক্ষায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনেক অমুসলিম নানাভাবে সোচ্চার হয়। খ্রিস্টানরা ফেসবুক, টুইটার, ইনস্টাগ্রামসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে লিখতে থাকে, ‘আমি খ্রিস্টান, আমি ইসলাম ধর্মের অবমাননার প্রতিবাদ জানাই। খ্রিস্টান ও মুসলিম এক হাতের মতো।’

গত ১৬ অক্টোবর ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসের একটি উপশহরে  মহানবী (সা.)-এর ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশ করে একজন শিক্ষক মতপ্রকাশের স্বাধীনতা শেখান। এরপর এক চেচান উগ্রপন্থী যুবক ওই শিক্ষকতে হত্যা করে।

শিক্ষকের শেষকৃত্যের অনুষ্ঠানে (২১ অক্টোবর) এক বক্তব্যে ফরাসি প্রেসিডেন্ট ম্যানুয়েল ম্যাখোঁ বলেন, ‘কার্টুন প্রকাশ থেকে ফ্রান্স কখনো বিরত থাকবে না।’ তাঁর এ বক্তব্যের মুসলিমরা প্রতিবাদ শুরু করে এবং অনেক মুসলিম দেশ ফরাসি পণ্য বয়কট শুরু করে। ফরাসি প্রেসিডেন্টের বক্তব্যের প্রতিবাদে বিশ্বের সব মুসলিমদের সঙ্গে খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীরাও যুক্ত হয়।

সূত্র : আল জাজিরা নেট

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা