kalerkantho

মঙ্গলবার । ৪ কার্তিক ১৪২৭। ২০ অক্টোবর ২০২০। ২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

ফিলিস্তিন ও রোহিঙ্গাদের জন্য জাতিসংঘের সক্রিয় ভূমিকা প্রয়োজন : মালয়েশিয়া

অনলাইন ডেস্ক   

২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ১৩:১৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ফিলিস্তিন ও রোহিঙ্গাদের জন্য জাতিসংঘের সক্রিয় ভূমিকা প্রয়োজন : মালয়েশিয়া

মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মহিউদ্দিন ইয়াসিন

ফিলিস্তিন ও রোহিঙ্গাদের স্বার্থ সুরক্ষায় আরো শক্তিশালী ও কার্যকরী জাতিসংঘের প্রয়োজন বলে জানিয়েছেন মালয়েসিয়ার প্রধানমন্ত্রী।

গতকাল শনিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) জাতিসংঘের ৭৫তম সাধারণ অধিবেশনে একথা জানান মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মহিউদ্দিন ইয়াসিন। এছাড়া ফিলিস্তিনবাসীর অধিকার রক্ষায় মালয়েশিয়ার দৃঢ় অবস্থানের কথা জানিয়ে ইসরায়েলকে আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন করে সব ধরনের দখলদারিত্ব বন্ধের দাবী জানান তিনি।

মহিউদ্দিন বলেন, ‘মধ্যপ্রাচ্যে স্থায়ী শান্তি প্রতিষ্ঠা করতে চাইলে ইসরায়েলকে প্রথমে সব বেআইনি জমি দখল বন্ধ করতে হবে। এরপর ফিলিস্তিন ও আরব রাষ্ট্রগুলো থেকে তাদের সৈন্য প্রত্যাহার করতে হবে এবং ফিলিস্তিন শরণার্থীদের নিজ ভূখণ্ডে ফিরে যাওয়ার অধিকার দিতে হবে। জেরুজালেমে স্থিতিশীল অবস্থা ফিরিয়ে সর্বশেষ ইসরায়েলকে ফিলিস্তিনবাসীর সঙ্গে আলোচনায় বসতে হবে।’

ফিলিস্তিন ভূখণ্ড ইসরায়েলের সঙ্গে যুক্ত করা নিয়ে তিনি বলেন, ‘ফিলিস্তিন্য ইস্যুতে মালয়েশিয়ার অবস্থান খুবই স্পষ্ট। ইসরায়েলের সংযুক্তি সম্পূর্ণ বেআইনি। তা জাতিসংঘ, জেনেভা কনভেনশন ও নিরাপত্তা পরিষদের সিদ্ধান্তের পুরোপুরি লঙ্ঘনের শামিল। ফিলিস্তিনের বিরুদ্ধে ইসরায়েলের কোনো কিছু করার আইনি বৈধতা নেই।’

এছাড়া ১৯৫১ সালের শরণার্থী কনভেনশন ও ১৯৬৭ সালের প্রটোকল আইনের আলোকে রোহিঙ্গা শরনার্থীদের জন্য অন্যান্য দেশের দুয়ারও খুলে দেওয়ার আহ্বান জানান তিনি। তিনি বলেন, ‘দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার মধ্যে মালয়েশিয়া প্রায় দুই লাখের মতো এক বিশাল সংখ্যক রোহিঙ্গা শরণার্থীদের আশ্রয় দেয়।

সূত্র : আনাদোলু এজেন্সি

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা