kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৬ আশ্বিন ১৪২৭ । ১ অক্টোবর ২০২০। ১৩ সফর ১৪৪২

হাদিসে বর্ণিত শিক্ষণীয় গল্প

সৎকর্ম রক্ষা করে তিন যুবকের জীবন

অনলাইন ডেস্ক   

৪ আগস্ট, ২০২০ ১৩:৪২ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



সৎকর্ম রক্ষা করে তিন যুবকের জীবন

আল্লাহ তাআলা মানুষকে নানাভাবে পরীক্ষা করেন। তবে সর্বাবস্থায় একজন মুমিনের কর্তব্য হলো, আল্লাহর সন্তুষ্টিদায়ক কাজে অবিচল থাকা। তাছাড়া বিপদ থেকে রক্ষা পেতে সৎকর্মের ভূমিকা অনেক। নিয়মিত আল্লাহর পছন্দনীয় সৎকর্ম দ্বারা বিপদ থেকে রেহাই পাওয়া যায়।

আবদুল্লাহ ইবনে উমর (রা.) থেকে বর্ণিত, রাসুল (সা.) বলেছেন, ‘পূর্বযুগের তিন যুবক একবার পথ ধরে হেঁটে যাচ্ছিল।  রাত্রিযাপনের জন্য তাঁরা এক পাহাড়ের গুহায় আশ্রয় নেয়। হঠাৎ পাহড়ের উপর থেকে এক খণ্ড পাথর পড়ে গুহার মুখ বন্ধ হয়ে যায়। তাঁরা একে অপরকে বলল, পাথর থেকে রক্ষা পেতে তোমাদেরকে সৎকর্মের মাধ্যমে আল্লাহর কাছে দোয়া করতে হবে। অতঃপর তাঁরা নিজেদের সৎকর্ম দিয়ে আল্লাহর কাছে সাহায্য চাইল।

যুবকদের একজন বললো, হে আল্লাহ, আমার পিতা-মাতা ছিল অতিশয় বৃদ্ধ। আমার ছোট ছোট সন্তানও ছিল। সন্ধ্যায় বাড়ি ফিরে দুধ দোহন করে সন্তানদের আগে পিতা-মাতাকে পান করাতাম। একদিন আমার বাড়ি ফিরতে দেরি হয়। বাড়িতে এসে দেখি পিতা-মাতা ঘুমিয়ে পড়েছেন। প্রতিদিনের মতো সেদিনও আমি দুধ দোহন করি। পিতা-মাতার সজাগ হওয়ার অপেক্ষায় তাঁদের শিয়রে দুধের পাত্র নিয়ে দাঁড়িয়ে থাকি। এদিকে বাচ্চারা দুধের জন্য কান্না করছিল। কিন্তু পিতা-মাতার আগে বাচ্চাদেরকে পান করানো সঙ্গত মনে করিনি। এ অবস্থায় ভোর হয়ে যায়। অতঃপর বাবা-মা ঘুম থেকে জেগে দুধ পান করেন। হে আল্লাহ, এ কাজটি একমাত্র আপনার সন্তুষ্টির জন্য করে থাকলে আপনি আমাদেরকে পাথরের এ বিপদ থেকে রক্ষা করুন। অতঃপর পাথরটি সামান্য সরে যায়। কিন্তু সামান্য ফাঁক দিয়ে বের হওয়া সম্ভব ছিল না।

দ্বিতীয় জন বললো, হে আল্লাহ, আমার এক চাচাতো বোন ছিল। আমি তাঁকে সবচেয়ে বেশি ভালোবাসতাম। একদিন আমি তার সঙ্গে মন্দ কাজ করতে চাই। কিন্তু সে অস্বীকৃতি জ্ঞাপন করে। একদিন বিপদে পড়ে সে আমার কাছে এক শ ২০ দিরহাম ধার চায়। সম্ভোগের শর্তে আমি তাকে পুরো অর্থ প্রদান করি। আমার কাছে আত্মসমর্পণ করে সে বলল, ‘হে আল্লাহর বান্দা, আল্লাহকে ভয় করো। অন্যায়ভাবে আমার সতীত্ব নষ্ট করো না।’ একথা শুনে আমি তখনই তাঁর কাছ থেকে সড়ে পড়ি। অথচ সে আমার প্রিয় ব্যক্তি ছিল। এবং আমার পাওনা স্বর্ণ মুদ্রাও ছেড়ে দেই। অতঃপর যুবক বলল, হে আল্লাহ, আমি তা একমাত্র আপনার সন্তুষ্টির জন্য করলে আপনি আমাদের এ বিপদ থেকে রক্ষা করুন । অতঃপর পাথরটা সামান্য সরে যায়। কিন্তু এ ফাঁক দিয়ে বের হওয়া সম্ভব ছিল না।

তৃতীয় জন বলল, হে আল্লাহ, একটি কাজের জন্য আমি কিছু শ্রমিককে নিয়োগ দেই। কাজের পর সবার পারিশ্রমিক পরিশোধ করি। কিন্তু একজন নিজের পারিশ্রমিক না নিয়েই চলে যায়। তাঁর রেখে যাওয়া অর্থ ব্যয় করে আমি অনেক সম্পদ উপার্জন করি। অনেক দিন পর শ্রমিকটি এসে আমাকে বলল, হে আল্লাহর বান্দা, আমার পারিশ্রমিক পরিশোধ করো। আমি তাঁকে বললাম, সামনে যে উট, গরু ও ছাগল দেখছ, সবই তোমার পারিশ্রমিকের অংশ। সে বললো, হে আল্লাহর বান্দা, আমাকে উপহাস করো না। আমি তাঁকে বললাম, তোমাকে আমি উপহাস করছি না। সবকিছু খুলে বলার পর সে সব কিছু নিয়ে গেল। সামান্যটুকুও রেখে যায়নি। হে আল্লাহ, আমি তা একমাত্র আপনার সন্তুষ্টির জন্য করলে, আপনি আমাদের এ বিপদ থেকে রক্ষা করুন । অতঃপর পাথর পুরোপুরি সরে যায় এবং তাঁরা সবাই ফের চলতে শুরু করে।’ (বোখারি, হাদিস নং : ২৩৩৩, মুসলিম হাদিস নং : ২৭৪৩)

অতএব, বিপদ থেকে মুক্তির জন্য নিয়মিত যেকোনো সৎকর্মে নিমগ্ন থাকা উচিত। আল্লাহ আমাদের সবাইকে সৎকাজ করার তাওফিক দান করুন। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা