kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২০ জুন ২০১৯। ৬ আষাঢ় ১৪২৬। ১৬ শাওয়াল ১৪৪০

ব্যক্তিত্ব

১৬ মে, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ব্যক্তিত্ব

জোসেফ ফুরিয়ে

ফরাসি গণিতবিদ জোসেফ ফুরিয়ের জন্ম প্যারিসের ওসের শহরে ২১ মার্চ ১৭৬৮ সালে। তাঁর জীবন ছিল বৈচিত্র্যপূর্ণ এবং কখনো প্রতিকূলও। ওসেরে অবস্থিত সাঁ-ব্যনোয়া-স্যুর-লোয়ার নামের বেনেডিক্টদের দ্বারা পরিচালিত মঠে শিক্ষারত অবস্থায় তিনি গণিতের প্রেমে পড়েন। ১৭৯৫ সাল থেকে তিনি একোল নরমাল এবং একোল পলিটেকনিকে শিক্ষকতার দায়িত্ব পালন করেন। তিনি ফরাসি বিপ্লবের একজন সক্রিয় সমর্থক ছিলেন। একাধিকবার তিনি অল্পের জন্য কারাবন্দিত্ব এবং মৃত্যুদণ্ডের হাত থেকে বেঁচে যান। তিনি তাপীয় পরিবহনের গাণিতিক তত্ত্ব প্রদানের জন্য বিখ্যাত হয়ে আছেন। যেকোনো গাণিতিক অপেক্ষককে বিশেষ কিছু ত্রিকোণমিতিক ধারার সাহায্যে প্রসারণের কৌশল এই তত্ত্বের অন্তর্গত। যদিও এ ধরনের প্রসারণ-কৌশল তাঁর আগেই অনুসন্ধান করা হয়েছিল, তবু বিশেষ অবদানের জন্য তাঁর নামেই এর নামকরণ করা হয়। তাঁর ধারাগুলোকে বিজ্ঞানের নানা শাখায় এক অপরিহার্য সরঞ্জাম হিসেবে বিবেচনা করা হয়। গ্রেনোবলে অবস্থানের সময়েই তিনি তাঁর বেশির ভাগ গুরুত্বপূর্ণ বৈজ্ঞানিক কাজ সম্পাদন করেন। বিজ্ঞান ও রাজনীতি, দুই ক্ষেত্রেই ছিল তাঁর স্বচ্ছন্দ বিচরণ। বিপ্লব এবং নেপোলিয়ানের দ্বারা উদ্দীপ্ত হয়ে তিনি গণিত ও বিজ্ঞানে অসামান্য অবদান রাখেন। তাঁর জীবনের শেষ বছরগুলো কাটে প্যারিসে। সেখানে তিনি আকাদেমি দে সিয়ঁসের সেক্রেটারি পদ লাভ করেন। তাঁর লেখা গবেষণামূলক গ্রন্থ তাপের বিশ্লেষণী তত্ত্বতে তিনি তাঁর ধারার সাহায্য পর্যায়ক্রমিক অপেক্ষকগুলোকে কিভাবে সাইন ও কোসাইনের অসীম ধারা হিসেবে প্রকাশ করা যায় তার বর্ণনা দেন। ১৮৩০ সালের ১৬ মে তিনি মারা যান।

[উইকিপিডিয়া অবলম্বনে]

মন্তব্য