kalerkantho

মঙ্গলবার। ১৮ জুন ২০১৯। ৪ আষাঢ় ১৪২৬। ১৪ শাওয়াল ১৪৪০

ব্যক্তিত্ব

২৩ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ব্যক্তিত্ব

সত্যজিৎ রায়

চলচ্চিত্রকার, আলোকচিত্রী, চিত্রকর, শিশুসাহিত্যিক, সংগীতজ্ঞ সত্যজিৎ রায়ের জন্ম ১৯২১ সালের ২ মে কলকাতায়। তাঁর পৈতৃক নিবাস ছিল ময়মনসিংহের মসুয়া গ্রামে। তাঁর বাবার নাম সুকুমার রায় ও মা সুপ্রভা রায়। তাঁর পিতামহ উপেন্দ্রকিশোর রায় চৌধুরীও ছিলেন প্রখ্যাত লেখক, শিশুসাহিত্যিক ও সন্দেশ-এর সম্পাদক। জন্মের মাত্র দুই বছরের মধ্যেই বাবাকে হারিয়ে মামার আশ্রয়ে তাঁর শৈশব-কৈশোর অতিবাহিত হয়। বালিগঞ্জ সরকারি হাই স্কুল থেকে ম্যাট্রিক ও প্রেসিডেন্সি কলেজ থেকে অর্থনীতিতে অনার্সসহ বিএ পাসের পর ১৯৪০ সালে তিনি শান্তিনিকেতনে ভর্তি হন। ১৯৪৩ সালে বিজ্ঞাপনী সংস্থার কমার্শিয়াল আর্টিস্ট হিসেবে তাঁর কর্মজীবন শুরু হয়। ১৯৫০ সালে চাকরির সূত্রে লন্ডনে অবস্থানকালে তিনি প্রায় ১০০ চলচ্চিত্র দেখেন এবং বিখ্যাত পরিচালকদের সঙ্গে পরিচিত হন। ইতালির ‘দ্য বাইসাইকেল থিফ’ দেখে তিনি মুগ্ধ হন ও বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপন্যাস ‘পথের পাঁচালী’ অবলম্বনে ছবি নির্মাণের সিদ্ধান্ত নেন এবং ১৯৫২ সালে অপেশাদার লোকজন নিয়ে ছবির শুটিং শুরু করেন। ১৯৫৫ সালে ‘পথের পাঁচালী’ মুক্তির পরপরই সারা বিশ্বে প্রশংসা লাভ করে ও পুরস্কার অর্জন করে। এ ছাড়া তিনি বেশকিছু চলচ্চিত্র নির্মাণ করেন, বহু ছবির চিত্রনাট্য রচনা ও সংগীত পরিচালনা করেন। লেখক হিসেবেও তিনি খ্যাতি অর্জন করেন। বিষয় চলচ্চিত্র, ফেলুদা ও শঙ্কু সিরিজ; পিকুর ডায়েরি উল্লেখযোগ্য। ভারত সরকারের ৪০টি এবং আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে অন্তত ৬০টি পুরস্কার লাভ করেন। ১৯৯২ সালের ২৩ এপ্রিল তাঁর মৃত্যু হয় ।

[বাংলাপিডিয়া অবলম্বনে]

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা