kalerkantho

রবিবার । ২৬ মে ২০১৯। ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ২০ রমজান ১৪৪০

মুক্তিযুদ্ধের চেতনা কাজে প্রমাণ করতে হবে

৩০ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



স্বাধীনতা অর্জনের ৪৮ বছরে অনেক দূর এগিয়েছে বাংলাদেশ। সুবর্ণ জয়ন্তীর কাছাকাছি সময়ে উপনীত হয়েছি আমরা। বাংলাদেশ বিশ্বে আজ উন্নয়নের রোল মডেল। সমৃদ্ধির অদম্য অগ্রযাত্রার পথে রয়েছে বাংলাদেশ। কয়েক বছর ধরে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ৭ শতাংশের ওপরে অবস্থান করছে। বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ বর্তমানে প্রায় ৩৩ বিলিয়ন ডলার। তৈরি পোশাক শিল্পের প্রবৃদ্ধিও ভালো। কয়েক বছর ধরে দেশে রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা বজায় রয়েছে। ২০২১ সালের মধ্যে ‘মধ্যম আয়ের ডিজিটাল বাংলাদেশের’ পথে এগিয়ে চলেছে দেশ। ২০৩০ সালের মধ্যে জাতিসংঘের টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রার ১৭টি লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে বাংলাদেশ পার্শ্ববর্তী অন্যান্য দেশ থেকে এগিয়ে রয়েছে। স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা ক্ষেত্রে বাংলাদেশ অভাবনীয় সাফল্য দেখিয়েছে। কৃষিক্ষেত্রেও সাফল্য আসছে। নারীর ক্ষমতায়ন বাড়ছে। কর্মক্ষেত্রে নারীর প্রবেশ বাড়ছে। শিশু ও মাতৃমৃত্যুর হার কমানোর ক্ষেত্রে বাংলাদেশ দক্ষিণ এশিয়ায় ভালো অবস্থানে আছে। গড় আয়ু বেড়েছে। বেড়েছে সাক্ষরতার হার। স্বাধীনতার এ স্বপ্নযাত্রায় দাঁড়িয়ে বাংলাদেশকে সামনের দিনগুলোতে অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখতে হলে আরো বেশ কিছু বিষয়ে গুরুত্ব দিতে হবে। গণতন্ত্র সূচকে বাংলাদেশকে আরো উন্নতি করতে হবে। দেশের উন্নয়নে সব পর্যায়ের তরুণ জনগোষ্ঠীকে কাজে লাগাতে হবে। দেশের উন্নয়নে বিনিয়োগের সব ধরনের সমস্যা দূর করে বিনিয়োগবান্ধব পরিবেশ তৈরি করতে হবে।

সাধন সরকার

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা।

মন্তব্য