kalerkantho

শনিবার । ১ অক্টোবর ২০২২ । ১৬ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

বাস্তব চেহারা পেলেন ৫ হাজার ৭০০ বছর আগে মারা যাওয়া নারী!

অনলাইন ডেস্ক   

২৩ আগস্ট, ২০২২ ১৭:৩১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বাস্তব চেহারা পেলেন ৫ হাজার ৭০০ বছর আগে মারা যাওয়া নারী!

৫ হাজার ৭০০ বছর আগে মারা যাওয়া এক রহস্যময়ী নারীর মুখ ঠিক তার প্রকৃত রূপ নিয়ে তাকিয়ে আছে!

‘পেনাং মহিলা’ তার নাম। ২০১৭ সালের এপ্রিলে উত্তর-পশ্চিম মালয়েশিয়ার গুয়ার কেপাহতে তার কঙ্কাল পাওয়া যায়। প্রস্তর যুগের শেষের দিকে প্রায় ৪০ বছর বয়সে তার মৃত্যুর পর তাকে ওখানে সমাহিত করা হয়েছিল। এখন একটি ফরেনসিক ফেসিয়াল রিপ্লেসমেন্ট হাজার হাজার বছর পর প্রথমবারের মতো তার সাদৃশ্য রূপ প্রকাশ করেছে।

বিজ্ঞাপন

একটি নতুন একাডেমিক গবেষণার আওতায় এটা করা হয়েছে।

ব্রাজিলিয়ান গ্রাফিক্স বিশেষজ্ঞ সিসেরো মোরেস এবং পেনাংয়ের ইউনিভার্সিটি সেন্স মালয়েশিয়ার (ইউএসএম) একটি দল এই কাজের জন্য ডিজিটাল পদ্ধতি ব্যবহার করেছে।

মি. মোরেস বলেন, ‘প্রাথমিকভাবে ফরেনসিক বিজ্ঞানের বিশেষজ্ঞরা মাথার খুলিটি পুরুষ না নারীর, এর বয়স এবং এর পূর্বপুরুষ, যা আফ্রিকান, এশিয়ান বা ইউরোপীয় হতে পারে তা নির্ধারণ করতে গবেষণা করেন। একবার তারা ডাটা সংগ্রহ করার পর, তারা ডিজিটাইজড খুলি পাঠায় যাতে আমরা অনুমানের ভিত্তিতে কাজ করতে পারি। আমরা আধুনিক মালয়েশিয়ার সিটি স্ক্যানগুলো অধ্যয়ন করেছি, যাতে চেহারার আকার, মাথার খুলির সাথে ঠোঁটের আকার, চোখের বলয়ের অবস্থান এবং অন্যান্য কাঠামো সম্পর্কে পরিষ্কার ধারণা পাওয়া যায়। ’

তিনি বলেন, ‘এ ছাড়া আমরা শারীরবৃত্তীয় বিকৃতি (বা অভিযোজন) কৌশলও ব্যবহার করি, যেখানে আমরা এক বা একাধিক ভার্চুয়াল দাতা নিই এবং তাদের মাথার খুলির গঠন আনুমানিকভাবে বিকৃত করি। প্রক্রিয়াটির কিছুটা জটিলতা রয়েছে, তবে অবশ্যই আমরা যে ডিজিটাল পদ্ধতি ব্যবহার করি তা ক্লাসিক ফর্মের চেয়ে অনেক সহজ এবং আরো অ্যাকসেসযোগ্য, যা ম্যানুয়াল ভাস্কর্যের ওপর ভিত্তি করে কাজ করে। ’

ফলাফল অতীতে একটি অনন্য নজির প্রকাশ করে, যা হাজার বছর অদেখা একটি মুখের সাদৃশ্য। যাহোক মি. মোরেস জোর দিয়ে এটাও বলেছেন, এটি কেবল একটি অনুমান হতে পারে!

সূত্র : ডেইলি মেইল।



সাতদিনের সেরা