kalerkantho

শুক্রবার । ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২ । ১৫ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

বাঁচতে চান নারদ, প্রয়োজন আমাদের সহযোগিতা

অনলাইন ডেস্ক   

১২ আগস্ট, ২০২২ ১৬:৩০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



বাঁচতে চান নারদ, প্রয়োজন আমাদের সহযোগিতা

টাকার অভাবে জেলে পরিবারের সন্তান নারদ হালদারের ক্লাস ফাইভের পর আর পড়া হয়নি। বাপ-দাদার সঙ্গে মাছ ধরতে হয়েছে নদীতে। যৌবনে জাল-নৌকা আর জীবনের প্রতি বিরক্ত হয়ে একদিন ঢাকা চলে আসেন তিনি। প্রচণ্ড পরিশ্রম আর দিনের পর দিন না খেয়ে থাকায় শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যায়।

বিজ্ঞাপন

তিনি টিবিতে আক্রান্ত হন। মনের জোর আর বন্ধুবান্ধবের সহযোগিতায় এক সময় ভালো হয়ে ওঠেন। কিন্তু শ্বাস-প্রশ্বাসের সমস্যা থেকেই যায়। আবার টাকা রোজগারের চিন্তা, অক্লান্ত পরিশ্রমে দিনের পর দিন না খেয়ে থাকা। পরে তার ধরা পরে পোস্ট টিউবারকিউলোসিস বি/এল লাং ব্রঙ্কাইটাসিস। কিন্তু বন্ধুবান্ধবের সহযোগিতা আর ধারদেনা করেও রোগ থেকে মুক্তি মেলে না। বক্ষব্যাধি হাসপাতাল অনেক চেষ্টা করেও রোগ থেকে মুক্তিমেলেনি। ফুসফুসের ৫০ শতাংশ নষ্ট। শারীরিক সক্ষমতাও নেই। ধুঁকে ধুঁকে মরা ছাড়া বাংলাদেশে তাঁর কোনো চিকিৎসা নেই।

৩৮ বছরের নারদের বাড়ি রাজবাড়ী জেলার রতনদিয়া গ্রামে। তিনি এখন এক মুহূর্তও অক্সিজেন ছাড়া থাকতে পারেন না। চলতে পারেন না। বুকভরে নিঃশ্বাস নিতে পারেন না। কথা বলতে প্রচণ্ড কষ্ট হয়। কাশি দিলে গলগল করে রক্ত পড়ে। রক্ত বন্ধ করতে হাসপাতালে ভর্তি হয়ে থাকতে হয় ১০-১৫ দিন। নির্দিষ্ট ওষুধের সঙ্গে চলে কড়া অ্যান্টিবায়োটিক।

নারদ তাই বাঁচার স্বপ্ন নিয়ে যোগাযোগ করতে থাকেন ভারতের বিভিন্ন হাসপাতালে। চেন্নাইয়ের অ্যাপোলো হাসপাতালের ডাক্তাররা তাকে রোগমুক্তির আশ্বাস দেন। এতে দরকার সাড়ে ২৬ লাখ রুপি। মেজর দুটো অপারেশন হবে। একজনকে সঙ্গে নিয়ে যাওয়া, সেখানে থাকা-খাওয়া, পরবর্তী যে কোনো পরিস্থিতি মোকাবিলা- সব মিলিয়ে বাংলাদেশি মুদ্রায় ৩২ থেকে ৩৫ লাখ টাকার প্রয়োজন।

তাই দেশের ১৭ কোটি মানুষ যদি একটি করে টাকা দেয় তাহলে ১৭ কোটি টাকা। নারদের চিকিৎসায় এত টাকার প্রয়োজন নেই। শুধু ৩৫ লাখ টাকা দরকার। আমরাই পারি নারদকে বাঁচিয়ে রাখতে; তার স্বপ্নকে সফল করতে। মাত্র ৩৫ লাখ টাকার বিনিময়ে মা ফিরে পাবেন সন্তান; দাদা ফিরে পাবেন ছোট ভাই; বোন ফিরে পাবে তার দাদাকে। এক জনমে এর চেয়ে আনন্দের আর কী হতে পারে! নারদের পাশে আমরা দাঁড়াব। বাংলাদেশ দাঁড়াবে। মানবতার জয় হবেই।

নারদ হালদার, সোনালী ব্যাংক, কালুখালী শাখা, অ্যাকাউন্ট নম্বর-২২১৩৭০১০১২৩৮২। ডাচ্‌-বাংলা ব্যাংক, কালুখালী শাখা, অ্যাকাউন্ট নম্বর- ৭০১৭৩১৭৭৪৯৬৩২। নগদ, বিকাশ, রকেট নম্বর- ০১৯৫৩১৩৭৩৩১ এবং ০১৯৮৫৬৪৮৬১৪।



সাতদিনের সেরা