kalerkantho

সোমবার । ৮ আগস্ট ২০২২ । ২৪ শ্রাবণ ১৪২৯ । ৯ মহররম ১৪৪৪

মানবদেহের গন্ধ বদলে দেয় ডেঙ্গু ও জিকা

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৩ জুলাই, ২০২২ ০৮:৩২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মানবদেহের গন্ধ বদলে দেয় ডেঙ্গু ও জিকা

জিকা ও ডেঙ্গুর ভাইরাস মানবদেহের গন্ধ বদলে দিয়ে আক্রান্তকে অন্য মশাদের কাছে আরো বেশি আকর্ষণীয় করে তোলে। পরে সে মশাগুলোও আক্রান্তকে কামড়ায়। আর এভাবেই নতুন ভুক্তভোগীর শরীরে ওই ভাইরাসগুলো পৌঁছে যেতে থাকে।

সাম্প্রতিক এক গবেষণায় উঠে এসেছে তথ্যগুলো।

বিজ্ঞাপন

জানা গেছে, শুধু মানুষই নয়, আক্রান্ত ইঁদুরের বেলায়ও একই ঘটনা ঘটে। গবেষণাটি সেল সাময়িকীতে প্রকাশিত হয়েছে।

মশাবাহিত ডেঙ্গু ভাইরাস মূলত গ্রীষ্মমণ্ডলীয় এলাকায় বিস্তার লাভ করে থাকে। এ ভাইরাসে শরীরে জ্বর, র‌্যাশ ও ব্যথা হয়। সঠিক চিকিৎসার অভাবে ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী মারাও যেতে পারে। অন্যদিকে গর্ভবতী নারী জিকা ভাইরাসে আক্রান্ত হলে গর্ভস্থ শিশুর শারীরিক বৈকল্যের আশঙ্কা সৃষ্টি হয়। তবে প্রাপ্তবয়স্কদের বেলায় এ ভাইরাস সংক্রমণে মাঝারি উপসর্গ বা উপসর্গহীনতা দেখা যায়। সাধারণত কয়েক দিনের মধ্যেই রোগী সেরে ওঠে।

বেইজিংয়ের সিনহুয়া ইউনিভার্সিটি, চায়নিজ সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশনসহ চীনের বেশ কয়েকটি গবেষণাগারের বিজ্ঞানীরা ডেঙ্গু আক্রান্ত ইঁদুরের ত্বকে গন্ধময় অণু খুঁজে পেয়েছেন। তাঁরা দেখেছেন, অন্যান্য মশার জন্যও আক্রান্ত ইঁদুরকে আরো আকর্ষণীয় করে তোলে ওই গন্ধময় অণু। এর মধ্যে যে অণুটি সবচেয়ে বেশি আকর্ষণ তৈরি করে থাকে, সেই অ্যাসিটোফেনোনকে মানব স্বেচ্ছাসেবকের শরীরে প্রয়োগ করে দেখা হয়। অণুটির উপস্থিতি জিকা ভাইরাসের বেলায়ও দেখা গেছে। গবেষকরা এখন অ্যাসিটোফেনোনকে লক্ষ্য করবে—এমন চিকিৎসাপদ্ধতি বের করার চেষ্টা করছেন।

সূত্র : বিবিসি



সাতদিনের সেরা