kalerkantho

সোমবার । ৮ আগস্ট ২০২২ । ২৪ শ্রাবণ ১৪২৯ । ৯ মহররম ১৪৪৪

এক মাছের দাম ১৩ লাখ টাকা

অনলাইন ডেস্ক   

২৭ জুন, ২০২২ ১৫:৪৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



এক মাছের দাম ১৩ লাখ টাকা

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের দিঘায় মৎস্যজীবীর জালে ধরা পড়েছে বিশালাকার তেলিয়া ভোলা মাছ। একটি মাছ বিক্রি করেই ১৩ লাখ টাকা পেলেন মাছ ব্যবসায়ী। গতকাল রবিবার দিঘা মোহনা মৎস্য নিলাম কেন্দ্রে সেই মাছ কিনতে হুড়োহুড়ি পড়ে যায়।

দিন কয়েক আগে ১২১টি তেলিয়া ভোলা বিক্রি করে রাতারাতি কোটিপতি হয়েছেন কয়েকজন ব্যবসায়ী।

বিজ্ঞাপন

তবে সেগুলোর প্রত্যেকটি বিক্রি হয়েছিল ১০-১৫ হাজার টাকায়।  

১৩ লাখ টাকার মাছ বিক্রি নিয়ে ‘দিঘা ফিশারম্যান অ্যান্ড ফিস ট্রেডার্স অ্যাসোসিয়েশন’-এর অন্যতম কর্মকর্তা নবকুমার পয়ড়্যা বলেন, পূর্ব ভারতের সব থেকে বড় নোনা মাছের মৎস্য নিলাম কেন্দ্র দিঘা মোহনায় ৫৫ কেজি ওজনের তেলিয়া ভোলা মাছ নিয়ে ব্যাপক দর কষাকষি চলেছিল। কয়েক ঘণ্টা নিলামের পর শেষ পর্যন্ত সেটি বিপুল টাকায় কিনে নিয়েছে এসএসটি নামের একটি সংস্থা।

তিনি আরো বলেন, এমন বড় আকারের তেলিয়া ভোলা বছরে দুই-তিনটা ধরা পড়ে।

রবিবার দিঘা মোহনা বাজারে ওই তেলিয়া ভোলা নিলামে বিক্রির জন্য আনেন দক্ষিণ ২৪ পরগনার নৈনানের মৎস্যজীবী শিবাজী কবীর। আড়ৎদার কার্তিক বেরা জানান, ৫৫ কেজির স্ত্রী মাছটি বিক্রির সময় ডিমের জন্য পাঁচ কেজি ওজন বাদ যায়। তার পর মাছটির নিলাম শুরু হলে প্রায় তিন ঘণ্টা ধরে দরদাম চলে। শেষ পর্যন্ত ১৩ লাখ টাকায় বিক্রি হয়েছে মাছটি।  

তিনি আরো বলেন, এই তেলিয়া ভোলাটি পুরুষ হলে দাম আরো বেশি হত। ছয়দিন আগেই দিঘা মোহনা বাজারে ৩০ কেজির একটি পুরুষ তেলিয়া ভোলাই ৯ লাখ টাকায় বিক্রি হয়েছে।

মৎস্যজীবীরা জানান, তেলিয়া ভোলা প্রজাতির মাছের পেটে থাকা পটকা জীবনদায়ী ওষুধের খোল তৈরির ক্ষেত্রে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ উপাদান। এই মাছের ওজন যত বেশি হয়, ততই বাড়ে তার পটকার মূল্য। এর আগেও দিঘা মোহনা মৎস্য নিলাম কেন্দ্রে এই তেলিয়া ভোলার সৌজন্যে রাতারাতি কোটিপতি হয়েছেন বেশ কয়েক জন ব্যবসায়ী। তবে সেগুলোর ওজন অনেক কম ছিল।  
সূত্র: আনন্দবাজার।



সাতদিনের সেরা