kalerkantho

মঙ্গলবার ।  ১৭ মে ২০২২ । ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ১৫ শাওয়াল ১৪৪৩  

টিএমটিই প্রকল্পের অধীনে প্রাথমিক শিক্ষকদের দ্বিতীয় দলের গ্র্যাজুয়েশন সম্পন্ন

অনলাইন ডেস্ক   

২৯ জানুয়ারি, ২০২২ ০৫:২২ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



টিএমটিই প্রকল্পের অধীনে প্রাথমিক শিক্ষকদের দ্বিতীয় দলের গ্র্যাজুয়েশন সম্পন্ন

ব্রিটিশ কাউন্সিল ও প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের সহযোগিতায় ট্রেইনিং অব মাস্টার্স ট্রেইনার্স ইন ইংলিশ (টিএমটিই) প্রকল্পের অধীনে প্রাথমিক শিক্ষকদের দ্বিতীয় দলের গ্র্যাজুয়েশন সম্পন্ন হয়েছে।  

বৃহস্পতিবার (২৭ জানুয়ারি) ঢাকা, গাজীপুর, শেরপুর, যশোর, বরিশাল এবং গোপালগঞ্জের প্রাইমারি টিচার্স ট্রেনিং ইনস্টিটিউটগুলোতে গ্র্যাজুয়েশন অনুষ্ঠিত হয়।   

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের (ডিপিই) মহাপরিচালক আলমগীর মুহম্মদ মনসুরুল আলম অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।  

এ ছাড়া ভার্চুয়াল গ্র্যাজুয়েশন সেরিমনি অনুষ্ঠানে অতিরিক্ত মহাপরিচালক (পিইডিপিফোর) দিলীপ কুমার বণিক, অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) সোহেল আহমেদ, প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের পরিচালক (প্রশিক্ষণ) ড. উত্তম কুমার দাস বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

বিজ্ঞাপন

অনুষ্ঠানে মূল বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ব্রিটিশ কাউন্সিলের ইংরেজি ও শিক্ষা পরিচালক ডেভিড মেনার্ড।

বিভিন্ন দলে ভাগ করে ২ হাজারেরও বেশি প্রাথমিক শিক্ষকদের ইংরেজি ভাষা বিষয়ক দক্ষতা ও শিক্ষা প্রদানের বিষয়ে উন্নতি করার লক্ষ্যে বিস্তৃত পরিসরের প্রকল্প হলো টিএমটিই। দ্বিতীয় ধাপে, ব্রিটিশ কাউন্সিল ৬ জেলায় ২২০ জন প্রাইমারি শিক্ষককে প্রশিক্ষণ প্রদান করেছে, যারা নিজস্ব এলাকার স্কুলগুলোতে উন্নত ও গুণগতমানের ইংরেজি শিক্ষা দিতে পারবে। প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত এ শিক্ষকগণ হলো দ্বিতীয় গ্রুপের শিক্ষক যারা ১৪ সপ্তাহের পেশাদার দক্ষতা অর্জনের পথচলা শুরু করেছে গত বছরের ২৪ অক্টোবর। গত কয়েক মাসের কঠোর পরিশ্রম ও নিবেদনের স্বীকৃতিস্বরূপ আজ তারা সনদ পেয়েছে।

গ্র্যাজুয়েশন অনুষ্ঠান নিয়ে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের (ডিপিই) মহাপরিচালক আলমগীর মুহম্মদ মনসুরুল আলম বলেন, 'ব্রিটিশ কাউন্সিলের এ প্রশিক্ষণটি বিশ্বমানের ছিল এবং এটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি প্রশিক্ষণও বটে। আমি ইতোমধ্যেই শিক্ষকদের নিজেদের কর্মক্ষেত্রে প্রশিক্ষণ শুরু করার পরামর্শ দিয়েছি, যাতে আমরা প্রকল্পের মেয়াদের মধ্যেই এ প্রশিক্ষণ সম্পন্ন করতে পারি। এ ব্যাপারে প্রস্তুতি গ্রহণ চলছে। যে মাস্টার ট্রেইনাররা আজ তাদের গ্র্যাজুয়েশন সম্পন্ন করেছেন, তারা এখন থেকে তাদের নিজেদের কর্মক্ষেত্রে প্রশিক্ষণ প্রদান করবেন। '

মূল বক্তায় ব্রিটিশ কাউন্সিলের ইংরেজি ও শিক্ষা পরিচালক ডেভিড আর মেনার্ড বলেন, 'এটি আমাদের সবার জন্য একটি কঠিন যাত্রা ছিল; কিন্তু আমি নিশ্চিত যে প্রশিক্ষণটি, অনুপ্ররেনাময়, আনন্দদায়ক এবং কার্যকরী ছিল এ ব্যাপারে আপনারা সবাই একমত হবেন। আপনারা যখন আপনাদের স্কুলে ফিরে যাবেন এবং তরুণ শিক্ষকদের সঙ্গে কাজ করেন, তখন আপনি এই প্রশিক্ষণটিকে কার্যকর করতে এবং মানসম্পন্ন ইংরেজি প্রশিক্ষণ প্রদানের মাধ্যমে অন্য শিক্ষকদের সহায়তা করতে পারবেন। প্রাথমিক পর্যায়ে সবার জন্য ইংরেজির মান উন্নত করাই এ প্রোগ্রামের মুখ্য উদ্দেশ্য। '  

ব্রিটিশ কাউন্সিল এবং প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর এ বছর সারা দেশে আরো পিটিআই প্রোগ্রামের অধীনে আরো প্রাথমিক শিক্ষকদের নিয়ে প্রশিক্ষণ চালিয়ে নিতে সচেষ্ট রয়েছে।



সাতদিনের সেরা