kalerkantho

বৃহস্পতিবার ।  ১৯ মে ২০২২ । ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ১৭ শাওয়াল ১৪৪৩  

জামাইকে ৩৬৫ দিন ভালো রাখতে শ্বশুরবাড়ি যা করল!

অনলাইন ডেস্ক   

১৯ জানুয়ারি, ২০২২ ১১:০২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জামাইকে ৩৬৫ দিন ভালো রাখতে শ্বশুরবাড়ি যা করল!

‘জামাই আদর’ বললেও নিঃসন্দেহে অনেক কম হয়ে যায়। তা-ও আবার হবু জামাই। বিয়ের পর্ব সারা হয়নি। তা ভেঙ্কটেশ্বরা রাও ও মাধবী দম্পতি এতসব মানলে তো! 

সংক্রান্তি উপলক্ষে হবু জামাইকে দাওয়াত করে ৩৬৫ রকমের খাবার খাইয়েছেন তারা।

বিজ্ঞাপন

তাক লাগানো এ ঘটনা ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশের পশ্চিম গোদাবরী জেলায়।

সংক্রান্তির দিন জামাইয়ের জন্য খাবারের আয়োজন তেলেগু সংস্কৃতির অঙ্গ। সে ঐতিহ্য মেনেই হবু জামাই সাইকৃষ্ণকে দুপুরে খাওয়ার দাওয়াত দিয়েছিলেন শ্বশুর- শাশুড়ি। হবু শাশুড়ির শখ ছিল জামাইকে ‘ভূরিভোজ’ করাবেন। সেভাবেই করেন আয়োজন।  

তো, খেতে বসে হবু জামাই সাইকৃষ্ণের চোখ কপালে! ডাইনিং টেবিল তো বটেই, ঘরজুড়েই শুধু খাবার আর খাবার! পরে জিজ্ঞেস করে জেনেছেন সাইকৃষ্ণ, পদ ছিল মোট ৩৬৫টি।  

হবু শাশুড়ি মাধবী জানিয়েছেন, জামাইয়ের বছরের প্রতিটি দিন যেন ভালো যায় সে প্রত্যাশা থেকেই ৩৬৫ পদের আয়োজন।

খাবারের তালিকায় ছিল ৩০ ধরনের তরকারি, ভাত, বিরিয়ানি, পুলিহরা, ১০০ রকমের মিষ্টান্ন, ১৫ রকমের আইসক্রিম, পেস্ট্রি, কেক, ঠাণ্ডা ও গরম পানীয়, ফল।  

এ মহাভোজের পরই সাইকৃষ্ণের সঙ্গে ভেঙ্কটেশ্বরা-মাধবী দম্পতির আদরের মেয়ে কুণ্ডাভির বিয়ের অনুষ্ঠান আয়োজন হয়।
সূত্র : আনন্দবাজার।



সাতদিনের সেরা