kalerkantho

মঙ্গলবার ।  ২৪ মে ২০২২ । ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ২২ শাওয়াল ১৪৪৩  

ভারতের 'কার কিং', ৯ বছর ধরে চুরি করছেন দামি গাড়ি

অনলাইন ডেস্ক   

১৬ জানুয়ারি, ২০২২ ১২:২৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ভারতের 'কার কিং', ৯ বছর ধরে চুরি করছেন দামি গাড়ি

তার শখ হয়েছিল ‘কার কিং’ হওয়ার। উদ্দেশ্য বড়লোক হয়ে বিলাসী জীবন কাটাবেন। তার জন্য বেছে নিয়েছিলেন দামি গাড়ি চুরির পথ।  

ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লির সিভিল লাইন এলাকা থেকে ৪২ বছর বয়সী ওই লোককে আটক করেছে পুলিশ।

বিজ্ঞাপন

তার কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে চুরি যাওয়া তিনটি গাড়ি, গাড়ির রেজিস্ট্রেশন নম্বর প্লেট, একাধিক গাড়ির চাবি এবং গাড়ি চুরির যন্ত্রপাতি।  

দিল্লি উত্তরের ডিসিপি সাগর সিং কালসি এ ব্যাপারে বলেন, 'কার কিং' নামধারী এক ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে। তার কাছ থেকে গাড়ির যন্ত্রাংশ ও বেশ কিছু চাবি উদ্ধার করা হয়েছে।

গাড়ি চোরের কাজের পদ্ধতি সম্পর্কে পুলিশ কর্মকর্তা কালসি আরো বলেন, ধরুন কাশ্মীরে কোনো গাড়ি দুর্ঘটনা হলো এবং বেশি ক্ষতিগ্রস্ত সেই গাড়িটি আর ব্যবহার করা হচ্ছে না। গাড়িটির মালিক 'কার কিং'-এর সঙ্গে যোগাযোগ করে বললেন একই ধরনের একটি গাড়ির ব্যবস্থা করে দিতে। চাহিদা অনুযায়ী তিনি অন্য আরেকটি গাড়ি ‘যোগাড় করে’ তাতে পুরনো নম্বর প্লেট লাগিয়ে দেন।  

ডিসিপি সাগর সিং জানান, দিল্লির বিভিন্ন থানায় কুনাল নামে ওই গাড়ি চোরের ব্যাপারে ৯টি অভিযোগ রয়েছে।

পুলিশ বলছে, গত ১০ জানুয়ারি সিভিল লাইন এলাকার শ্রেতাঙ্ক আগারওয়াল তার বাড়ি থেকে একটি দামি টয়োটা গাড়ি খোয়া যাওয়ার অভিযোগ দায়ের করেন। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ রাজধানীর কাশ্মীরি গেট থেকে একই ধরনের গাড়িসহ কুনালকে ধরে ফেলে। তদন্তে দেখা যায়, গাড়িটির রেজিস্ট্রেশন এবং চেসিস নম্বর মিলছে না।

এছাড়া কুনালের কাছ থেকে বেশ কয়েকটি গাড়ি, নম্বর প্লেট, চাবি এবং গাড়ি চুরিতে ব্যবহৃত সরঞ্জাম উদ্ধার করেছে পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদে কুনাল পুলিশকে বলেছেন, ২০১৩ সাল থেকে বিলাসবহুল গাড়ি চুরি করে আসছেন তিনি। চুরি করা গাড়ি বিক্রি করেন উত্তরপ্রদেশ এবং কাশ্মীরে। নয়াদিল্লির অমর কলোনিতে তার বাবার দোকান রয়েছে।  

কুনাল পুলিশকে জানিয়েছেন, অন্তত ১০০ বিলাসবহুল গাড়ি চুরির টার্গেট ছিল তার। এ কাজের মধ্য দিয়ে তিনি হয়ে উঠতে চেয়েছিলেন ‘'কার কিং'।  
সূত্র: এনডিটিভি।



সাতদিনের সেরা