kalerkantho

সোমবার । ১১ শ্রাবণ ১৪২৮। ২৬ জুলাই ২০২১। ১৫ জিলহজ ১৪৪২

ঝিনাইদহে নারিকেল গাছে নারী, নামাল ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা

অনলাইন ডেস্ক   

২৫ জুন, ২০২১ ১৬:৩৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ঝিনাইদহে নারিকেল গাছে নারী, নামাল ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা

নারিকেল গাছে নারী। শিরোনাম দেখেই চমকে উঠপ্তে পারেন পাঠকেরা। এমনই ঘটনা ঘটেছে ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার বেগমপুর গ্রামে। 'জিনের আছরে’ রাতের অন্ধকারে নারিকেল গাছের মাথায় উঠেছেন তাহমিনা (২২) নামের এক নারী। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের কর্মীরা উপস্থিত হন। এরপর গাছ থেকে নামিয়ে আনেন ঐ নারীকে। 

বৃহস্পতিবার (২৪ জুন) রাত ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। তাহমিনা ওই গ্রামের মো. হাসানের স্ত্রী।

নারীর স্বামী মো. হাসান বলেন, আমার স্ত্রীর একটু জিনের সমস্যা আছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় আমি বাজারে চা পান করতে যাই। রাত ৮টার দিকে বাড়ি থেকে ফোন করে জানানো হয়, তাহমিনাকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। বাড়িতে এসে আশেপাশে অনেক খোঁজাখুঁজি করেও তাকে পাওয়া যায় না।

হাসান বলেন, রাত সাড়ে ৮টার দিকে শুনি আমার স্ত্রী মেয়ের নাম ধরে ডাকছে। আর বলছে আমাকে নামাও, ওরা আমাকে নিয়ে গেল। তার এ কথা শুনে বাড়ির পাশে নারকেল গাছে টর্চলাইট মেরে দেখা যায়, সে গাছের মাথায়। তখন তাকে গাছ থেকে নামানোর চেষ্টা করেও পারিনি। পরে মহেশপুর ফায়ার সার্ভিসকে খবর দিলে তার এসে নামিয়ে দেয়।

মো. হাসান আরও বলেন, স্ত্রীর এ সমস্যার জন্য অনেক কবিরাজ দেখিয়েছি কিন্তু তাতেও সুস্থ হচ্ছে না।

এ বিষয়ে মহেশপুর ফায়ার সার্ভিসের ভারপ্রাপ্ত স্টেশন অফিসার রমেশ কুমার সাহা বলেন, বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে একটা ফোন আসে এক নারী নারিকেল গাছের মাথায় উঠে আর নামতে পারছেন না। পরে সেখানে গিয়ে ৪০ মিনিটের চেষ্টায় তাকে গাছ থেকে নামানো হয়।



সাতদিনের সেরা