kalerkantho

বুধবার । ২৯ বৈশাখ ১৪২৮। ১২ মে ২০২১। ২৯ রমজান ১৪৪২

শরীরে করোনা, হাসপাতালের বিছানায় বসেই পরীক্ষার প্রস্তুতি

অনলাইন ডেস্ক   

২৮ এপ্রিল, ২০২১ ১৭:২৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শরীরে করোনা, হাসপাতালের বিছানায় বসেই পরীক্ষার প্রস্তুতি

ভারতে ব্যাপক আকারে ছড়িয়ে পড়েছে করোনাভাইরাস। ধারণ করেছে ভয়ঙ্কর রূপ। প্রায় প্রতিদিনই লাফিয়ে বাড়ছে সংক্রমণ। গণহারে ভ্যাকসিন দেওয়া শুরু করেও সংক্রমণ ঠেকানো যায়নি। করোনার দাপটে একেবারে লণ্ডভণ্ড হয়ে গেছে মানুষের দৈনন্দিন জীবনের স্বাভাবিক ছন্দ। এই দুঃসময়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের ভাইরাল অন্য ধাঁচের এক ছবি।

মারণভাইরাস করোনা যতোই তার দাঁত নখ বের করে, তর্জনী উঁচিয়ে হুমকি দিক, তাকে উপেক্ষা করে এখনও আগামীর স্বপ্ন দেখে মানুষ! ভারতের উড়িষ্যার হাসপাতাল থেকে ওঠে এল তেমনই এক ছবি। হাসপাতালের বেডে বসেই পরীক্ষার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন এক করোনা রোগী। আর এই ছবিটি ভাইরাল হয়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। স্থানীয় আইএএস অফিসার বিজয় কুলাঙ্গে টুইটারে শেয়ার করেন ছবিটি। এরপরই ছবিটি নিয়ে রীতিমতো শোরগোল পড়ে গেছে।

ভারতের স্থানীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়, ভাইরাল ছবিটি উড়িষ্যার বেরহামপুরের এমকেসিজি মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের। সেখানেই বিছানায় বসে রীতিমতো ফেস মাস্ক পরে চার্টার্ড অ্যাকাউন্টেন্ট বা সিএ পরীক্ষার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন এক যুবক। করোনা আক্রান্ত হয়েই হাসাপাতালে ভর্তি হয়েছেন তিনি। সামনে বই-খাতা খুলে, ক্যালকুলেটর নিয়ে হিসেব নিকেশে ব্যস্ত অবস্থায় তোলা হয়েছে তাঁর ছবি। ডিস্ট্রিক্ট ম্যাজিস্ট্রেট কুলাঙ্গেই সেই ছবি তুলেছেন বলে জানা গেছে।

করোনাকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে আগামী দিনের পরীক্ষার জন্য যুবকের এই প্রস্তুতি, এই দায়বদ্ধতা, নিঃসন্দেহে সাড়া ফেলেছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহারকারীদের মাঝে। বিজয় কুলাঙ্গে টুইটারে লিখেছেন,‘সাফল্য কাকতালীয় কোনো ব্যাপার নয়। এর জন্য ডেডিকেশন দরকার হয়। আমি আজ কভিড হাসপাতালে ঘুরে এলাম আর এই যুবককে দেখলাম তিনি তার সিএ পরীক্ষার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন।’

ডেডিকেশনই রোগের যাবতীয় যন্ত্রণা ভুলিয়ে দিতে পারে বলে দাবি করেছেন কুলাঙ্গে। ‘এরপর সাফল্যটা শুরু সময়ের অপেক্ষা’, বলেছেন তিনি। করোনা আক্রান্ত হয়েও যে ওই যুবক সিএ-র মতো কঠিন পরীক্ষা দেওয়ার চেষ্টা করছেন, তা নেট মাধ্যমে যথেষ্ট প্রশংসা কুড়িয়েছে।

সূত্র: দ্য ওয়াল।



সাতদিনের সেরা